default-image

দেশে তৈরি প্রিমো এইচএইট প্রো মডেলের স্মার্টফোন বাজারে এনেছে ওয়ালটন। বড় পর্দার নচ ডিসপ্লের স্মার্টফোনটিতে ৩ জিবি র‍্যাম, ৩২ জিবি রম, অক্টাকোর প্রসেসর, শক্তিশালী ব্যাটারি রয়েছে। ফোনটি অনলাইনের ই-প্লাজার মাধ্যমে আগাম ফরমাশ নেয় প্রতিষ্ঠানটি। আট হাজার ৪৯৯ টাকা দামের স্মার্টফোনটি আগাম ফরমাশে ভালো সাড়া ফেলেছে বলে দাবি করেছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ।

ওয়ালটন সেল্যুলার ফোন বিক্রয় বিভাগের প্রধান আসিফুর রহমান খান বলেন, ‘সবার জন্য নচ ডিসপ্লে’ স্লোগান নিয়ে প্রিমো এইচএইট প্রো বাজারে ছাড়া হচ্ছে। নচ ডিসপ্লের সুবিধা হলো—এর মাধ্যমে ফোনের আকৃতি না বাড়িয়ে বড় স্ক্রিনের ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়। ফলে ডিভাইসটি যেমন দৃষ্টিনন্দন হয়, তেমনই বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার এবং ভিডিও দেখা, গেম খেলা, বই পড়া বা ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ে অনন্য অভিজ্ঞতা মেলে।

ওয়ালটন সূত্রে জানা গেছে, ক্যামেলিয়ন ব্ল্যাক, সাইয়ান ব্লু এবং রেড এই তিনটি আকর্ষণীয় রঙের প্রিমো এইচএইট প্রো স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৫.৭১ ইঞ্চির ১৯: ৯ রেশিওর ইউ-নচ ডিসপ্লে। এইচডি প্লাস পর্দার রেজ্যুলেশন ১৫২০ বাই ৭২০ পিক্সেল। আইপিএস প্রযুক্তির স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ধুলা ও আঁচড়রোধী ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস।

ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত। এতে ব্যবহৃত হয়েছে ১.৬ গিগাহার্টজ গতির এআরএম কর্টেক্স-এ ৫৫ অক্টাকোর প্রসেসর। সঙ্গে রয়েছে ৩ জিবি ডিডিআর ৪ র‍্যাম এবং পাওয়ার ভিআর জিই ৮৩২২ গ্রাফিকস। ফোনটিতে ৩২ গিগাবাইটের অভ্যন্তরীণ মেমোরি দেওয়া হয়েছে। এর পেছনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত পিডিএএফ প্রযুক্তির এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ বিএসআই ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। যাতে রয়েছে ৫পি লেন্স। আকর্ষণীয় সেলফির জন্য সামনে রয়েছে পিডিএএফ প্রযুক্তির বিএসআই ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

দুর্দান্ত পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য স্মার্টফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৩৫২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। কানেকটিভিটি হিসেবে আছে ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪.২, মাইক্রো ইউএসবি ভার্সন ২, ওয়ারলেস ডিসপ্লে, ল্যান হটস্পট, ওটিএ এবং ওটিজি। হ্যান্ডসেটটির অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ডুয়েল সিমে ফোরজি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট, রেকর্ডিং সুবিধাসহ এফএম রেডিও, ফুল এইচডি ভিডিও প্লে-ব্যাক, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক ইত্যাদি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0