default-image

বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট সংযুক্ত দুই হাজার ১৭০ কোটি যন্ত্রের মধ্যে এ বছরের শেষ নাগাদ এক হাজার ১৭০ কোটি (৫৪ শতাংশ) যন্ত্র হবে ইন্টারনেট যুক্ত ‘ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি)’ যন্ত্র। বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইওটি অ্যানালাইটিকসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে আইওটি অ্যানালাইটিকস। বার্তা সংস্থা আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কম্পিউটার বা স্মার্টফোন নয় কিন্তু ইন্টারনেটে যুক্ত—সাধারণভাবে এমন যন্ত্র ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি) পণ্য হিসেবে পরিচিত। এসব যন্ত্রকে যেকোনো জায়গা থেকে নিয়ন্ত্রণ ও পর্যবেক্ষণ করা যায়। সারা বিশ্বেই বাড়ছে আইওটি পণ্যের ব্যবহার।

বিজ্ঞাপন


ইন্টারনেট সংযুক্ত আইওটি যন্ত্রের মধ্যে রয়েছে ইন্টারনেট যুক্ত গাড়ি, স্মার্টহোম যন্ত্র, ইন্টারনটে সংযুক্ত শিল্পখাতের যন্ত্রপাতি প্রভৃতি।

আইওটি অ্যানালাইটিকসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস মহামারি চলা স্বত্বেও আইওটি যন্ত্রের বাজার বড় হচ্ছে। বিশ্বে প্রথমবারের মতো ইন্টারনেট সংযুক্ত সাধারণ যন্ত্রের চেয়ে ইন্টারনেট যুক্ত আইওটি যন্ত্রের সংখ্যা বেশি হতে যাচ্ছে।

আইওটি অ্যানালাইটিকসের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেনুথ লাসা লুথ বলেন, ‘২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট যুক্ত আইওটি যন্ত্রের সংখ্যা তিন হাজার কোটি পার হয়ে যাবে। গড়ে একজন মানুষ প্রতি আইওটি যন্ত্র দাঁড়াবে ৪টি করে।’

লুথ আরও বলেন, আইওটি যন্ত্রের ব্যবহার বাড়ার পেছনে চীনে এর ব্যাপক ব্যবহার বাড়ার বিষয়টি যুক্ত। চীনে এখন যেভাবে আইওটি ব্যবহার বেড়েছে তা গত কয়েক বছর আগে অকল্পনীয় ছিল।’

আইওটি অ্যানালাইটিক্সের তথ্য অনুযায়ী, ব্যক্তিগত আইওটি যন্ত্র হিসেবে পরিধানযোগ্য ফিটনেস পণ্য, নতুন প্রজন্মের স্মার্ট হোম ডিভাইসের মতো বিষয়গুলোর ব্যবহার বাড়বে।

মন্তব্য পড়ুন 0