default-image

এখন চলছে ভাঁজ করা প্রযুক্তিপণ্যের কদর। এ ক্ষেত্রে এগিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান এলজি। তারা ভাঁজ করে রাখা যায় এমন ল্যাপটপ তৈরি করছে বলে গুঞ্জন উঠেছে। এ ল্যাপটপের ডিসপ্লে হতে পারে ১৭ ইঞ্চি। ইতিমধ্যে তারা নতুন ল্যাপটপের জন্য পেটেন্ট আবেদন করেছে। ওই তথ্য অনলাইনে ফাঁস হয়েছে। তবে এলজির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। ভারতের এনডিটিভি ও প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট জিএসএম এরেনার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এলজির পেটেন্ট আবেদন অনুযায়ী, ল্যাপটপটিতে সহজে ভাঁজ করে রাখা যায় এমন কি–বোর্ড ও টাচপ্যাড থাকবে। এতে ল্যাপটপটি সহজে বহন করা যাবে।

এনডিটিভির তথ্য অনুযায়ী, ভাঁজ করা ডিসপ্লে তৈরির দিক থেকে শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি হচ্ছে এলজি। তবে অপো ও টিসিএলের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো এখন ভাঁজ করা ডিসপ্লের স্মার্টফোন বাজারে আনার চেষ্টা করছে।

বিজ্ঞাপন

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট রুট মাই গ্যালাক্সির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভাঁজ করা এ ল্যাপটপের পেটেন্ট আবেদন অনুযায়ী, ডিসপ্লেটি ১৩ দশমিক ৩ ইঞ্চি থেকে ১৭ ইঞ্চিতে নেওয়া যায়। এ ল্যাপটপের পাওয়ার বাটন পাশে। সাধারণ ল্যাপটপে পাওয়ার বাটন কি–বোর্ডের সঙ্গে থাকে।

ডিসপ্লে ভাঁজ করা হলে এর ওয়েবক্যাম ঢেকে যায়। ডিসপ্লে দাঁড় করার জন্য টিক ডিসপ্লে ড্রাম রয়েছে। ফলে তা দাঁড় করাতে আলাদা স্ট্যান্ড বা কি–বোর্ডের দরকার হবে না। এর পাশাপাশি কি–বোর্ড ভাঁজ করে ফেলা যাবে।

ভাঁজ করা এ ল্যাপটপ সম্পর্কে এলজির পক্ষ থেকে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি।
এলজি ২০১৬ সালে কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক শো নামের এক আয়োজনে প্রথম ভাঁজ করা ওএলইডি ডিসপ্লে দেখিয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটি ৬৫ ইঞ্চি মাপের ভাঁজ করা টিভি নিয়েও কাজ করছে।

দীর্ঘদিন ধরে এলজির ভাঁজ করা স্মার্টফোন নিয়েও গুঞ্জন রয়েছে। এ স্মার্টফোনের নাম হতে পারে ‘এলজি রোলেবল’। গত সপ্তাহে চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অপো ‘এক্স ২০২১’ নামে ভাঁজ করা ওএলইডি ডিসপ্লে একটি স্মার্টফোনের ধারণা দেখিয়েছে।

মন্তব্য করুন