বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সেই নিবন্ধে আরও বলা হয়েছে, অপ্রাপ্তবয়স্কদের গেমিং অ্যাকাউন্ট কেনা, বেচা ও ভাড়া নেওয়া থামাতে শক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কিছু গেম ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম। গেমিং প্রতিষ্ঠানগুলোকে অবশ্যই ‘সক্রিয়ভাবে সামাজিক দায়িত্ব পালন করতে হবে’, ‘পরবর্তী প্রজন্মের স্বাস্থ্যকর বেড়ে ওঠায় দায়িত্বশীল হতে হবে’এবং ‘এই খাতের স্বাস্থ্যকর উন্নয়নকে প্রাধান্য দিতে হবে’।

‘অপ্রাপ্তবয়স্কদের স্বাস্থ্যসম্মতভাবে বেড়ে ওঠার জন্য’ অনুকূল পরিবেশ তৈরিতে পরিবার এবং বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকেও অনুরোধ করা হয়েছে। বিশেষ করে অনুরোধ করেছেন অভিভাবকেরা। কারণ, কিছু অপ্রাপ্তবয়স্ক অভিভাবকদের পরিচয় ব্যবহার করে অনলাইনে গেম অ্যাকাউন্টের জন্য নিবন্ধন করছে। এতে গেমের জন্য বেঁধে দেওয়া সময়সীমা অকার্যকর হয়ে পড়ছে।

ভিডিও গেমের সবচেয়ে বড় বাজার চীন। দেশটির সরকারি কর্তৃপক্ষ তরুণদের মধ্যে গেম ও ইন্টারনেটের আসক্তি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই চিন্তিত ছিল। এমনকি ‘গেমিং ডিজঅর্ডারে’ আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য চিকিৎসাকেন্দ্রও স্থাপন করে যেখানে থেরাপির পাশাপাশি সামরিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন