default-image

মেসেঞ্জার সেবার জন্য নতুন নীতি হালনাগাদ করেছে ফেসবুক। এর আওতায় ব্যবহারকারীরা কোনো বার্তা একবারে পাঁচজনকে বা পাঁচটি গ্রুপের বেশি ‘ফরোয়ার্ড’ করতে পারবেন না।

ফেসবুক আশা করছে, এ নীতি বাস্তবায়ন করা হলে তাদের মেসেঞ্জার প্ল্যাটফর্ম থেকে ভুয়া খবর ছড়ানোর বিষয়টি ঠেকানো সম্ভব হতে পারে।

ফেসবুকের মেসেঞ্জার সেবার প্রাইভেসি ও সেফটি বিভাগের পণ্য ব্যবস্থাপনা পরিচালক জয় সুলিভান বলেন, কার্যকর উপায়ে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা সীমিত করলে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়া ভুয়া তথ্য ও ক্ষতিকর কনটেন্ট বিস্তার ঠেকাবে। এসব কনটেন্ট সত্যিকারের দুনিয়ায় সম্ভাব্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

বিজ্ঞাপন

সুলিভান আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি, কোভিড-১৯ মহামারি অব্যাহত থাকায় ভুল তথ্যের বিস্তারকে নিয়ন্ত্রণ করা গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, নিউজিল্যান্ডসহ কয়েকটি দেশে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আমরা জনগণকে আরও স্বচ্ছতা এবং সঠিক তথ্য সরবরাহ করার পদক্ষেপ নিয়েছি।’

গত বছরে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের হোয়াটসঅ্যাপে এ ধরনের বার্তা ফরোয়ার্ড করার সুবিধা সীমিত করেছিল। গত এপ্রিল মাসে চ্যাটিংয়ের সময় বারবার বার্তা ফরোয়ার্ড করার সুবিধাও সীমিত করে হোয়াটসঅ্যাপ।

ফেসবুক তাদের প্ল্যাটফর্মে ভুয়া বা বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ না করার জন্য বহুবার তীব্র সমালোচিত হয়েছে। বার্তা ফরোয়ার্ড করার সংখ্যা সীমিত করে ভুয়া বার্তা ছড়ানো পুরোপুরি রোধ করা না গেলেও তা প্রক্রিয়াটির গতি কমিয়ে দেবে বলে মনে করছে ফেসবুক।

বিজ্ঞাপন

গত মার্চ মাসে ফেসবুক এ ধরনের ফিচার আনবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছিল। ওই সময় থেকেই ফেসবুকের ভেতরে ফিচারটি নিয়ে পরীক্ষা চলছিল।

ফেসবুকের মেসেঞ্জার অ্যাপে বার্তা ফরোয়ার্ড করার ক্ষমতা কমানোসহ আরও কিছু নতুন প্রাইভেসি ফিচার যুক্ত হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীরা এ সুবিধা পাবেন।

ফেসবুকের তথ্য অনুযায়ী, মেসেঞ্জার অ্যাপে যদি কোনো বার্তা ফরোয়ার্ড করার জন্য বেশি মানুষকে যুক্ত করা হয়, তবে হোয়াটসঅ্যাপ থেকে একটি বার্তা আসবে, যাতে দেখানো হবে আপনার বার্তা ফরোয়ার্ড করার সর্বোচ্চ সীমা পার হয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0