বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, এ সম্মেলন বিভিন্ন দেশের তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তির আন্তযোগাযোগ বৃদ্ধি, উন্নয়ন ও বিকাশে অবদান রাখবে। তিনি তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সমাপনী দিনে স্টার্টআপ, এডুটেক, স্মার্টসিটি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ও প্রযুক্তিব্যবসাবিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এসব সেমিনারে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, উইটসা মহাসচিব জেমস পয়সান্ট, এডুটেক হাবের কান্ট্রি অ্যাঙ্গেজমেন্ট লিড টম কায়ে চৌধুরীসহ অনেকে অংশ নেন।

ডব্লিউসিআইটির ২৫তম আসরে ‘উইটসা এমিনেন্ট পারসনস অ্যাওয়ার্ড-২০২১’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ছাড়া ‘অ্যাসোসিও লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড-২০২১’ পুরস্কার পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

বিশ্বের ৮০টি দেশের সদস্যভুক্ত সংগঠন ‘ওয়ার্ল্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সার্ভিসেস অ্যালায়েন্স’–উইটসার সম্মেলন এবার ‘আইসিটি দ্য গ্রেট ইকুলাইজার’ প্রতিপাদ্য নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাশাপাশি একই সময়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে এশিয়া এবং ওশেনিয়া অঞ্চলের আন্তর্জাতিক সম্মেলন অ্যাসোসিও ‘ডিজিটাল সামিট ২০২১’।
ডব্লিউসিআইটি ২০২২ মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠানের ঘোষণা দিয়ে এবারের আসরের সমাপ্তি ঘোষণা করেন উইটসা চেয়ারম্যান ইয়ানিস সিরোস।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন