সাড়ে ৭ কোটি ফাইভ–জি আইফোন তৈরি করছে অ্যাপল

বিজ্ঞাপন
default-image

কবে আসবে নতুন আইফোন? অ্যাপলপ্রেমীদের প্রতিবছর নতুন আইফোনের অপেক্ষায় দিন কাটে। প্রতিবছরের মতো এবারেও নতুন আইফোনের দেখা মিলতে পারে সেপ্টেম্বর বা অক্টোবরে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এ বছর অ্যাপল যে নতুন মডেলের আইফোন আনবে, তা ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক সমর্থন করবে।

বাজার বিশ্লেষকেরা ধারণা করছেন, আগামী বছর ফাইভ-জি স্মার্টফোনের চাহিদা বাড়বে। বাজারের দিকে লক্ষ্য রেখে অ্যাপল এবারে সাড়ে সাত কোটি ইউনিট আইফোন তৈরির ফরমাশ দিয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, অ্যাপল এ বছর নতুন ফাইভ-জি আইফোনের সঙ্গে নতুন অ্যাপল ওয়াচ, নতুন আইপ্যাড এয়ার ও ছোট আকারের হোমপডের ঘোষণা দিতে পারে। অ্যাপলের পণ্য সম্পর্কে ধারণা রাখেন—এমন ব্যক্তির কাছ থেকে এসব তথ্য গণমাধ্যমে এসেছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রযুক্তিবিষয়ক একাধিক ওয়েবসাইটে বলা হচ্ছে, পরবর্তী প্রজন্মের আইফোন হিসেবে যে আইফোন আসবে, তা চলতি বছরেই আট কোটি ইউনিটের বেশি বাজারে আসতে পারে। আগামী মাসে নতুন আইফোনের এ মডেলের ঘোষণা আসতে পারে।

নতুন আইফোন হিসেবে ‘আইফোন ১২’-এর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে পারে অ্যাপল। এতে নতুন নকশা, বিভিন্ন স্ক্রিনের বিভিন্ন সংস্করণ ও সাশ্রয়ী দামের একটি আইফোন সংস্করণ বাজারে আসতে পারে। অ্যাপলের পক্ষ থেকে অবশ্য নতুন আইফোন নিয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, অ্যাপল সাধারণত নতুন আইফোন উদ্বোধনের অনুষ্ঠান সেপ্টেম্বরে আয়োজন করে। তবে আইফোন ১২ সিরিজের অনুষ্ঠান এবারে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে কিছুটা দেরিতে আয়োজন করতে পারে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি টুইটারে একটি অ্যাকাউন্ট থেকে আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্সের ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে বলা হয়েছে, এবারের আইফোনে যে ব্যাটারি যুক্ত করা হচ্ছে, এতে দীর্ঘ সময় চার্জ থাকবে। নতুন আইফোনের মডেলটি হবে ৬.৭ ইঞ্চি ওএলইডি ডিসপ্লের। আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্সে ছিল ৫.৮ ইঞ্চি মাপের ডিসপ্লে। এ ছাড়া নতুন মডেলের আইফোনের ডিসপ্লে রেজুলেশন আগের সংস্করণের চেয়ে বেশি হবে।

ডিসপ্লে ছাড়াও নতুন আইফোনে এ১৪ বায়োনিক চিপসেট থাকবে, যাতে যুক্ত হবে চতুর্থ প্রজন্মের নিউরাল ইঞ্জিন। এতে তিনটি ক্যামেরা সেটআপ থাকবে। এর প্রাথমিক সেন্সর ১৬ মেগাপিক্সেলের সঙ্গে আলট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা ও টেলিফটো ক্যামেরা থাকছে। এতে আইপ্যাড প্রো মডেলের মতো আলাদা করে লিডার সেন্সর থাকবে, যাতে নতুন অগমেন্টেড রিয়্যালিটি সুবিধা সমর্থন করবে।

বার্তা সংস্থা সিএনএনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, নতুন আইফোনে ক্রেতাদের আকর্ষণ করার মতো বেশ কিছু ফিচার থাকছে। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ফিচার হচ্ছে ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক সমর্থন। এ কারণে অনেকেই নতুন আইফোন হালনাগাদ করবেন।

তথ্যপ্রযুক্তি বিশ্লেষক জন প্রসের দাবি করেন, নতুন আইফোন সংস্করণভেদে ৬৪৯ মার্কিন ডলার থেকে ১ হাজার ৯৯ ডলারে কিনতে পারবেন গ্রাহক।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন