স্পর্শ বুঝতে পারবে কৃত্রিম ত্বক

বিজ্ঞাপন
default-image

সিঙ্গাপুরের গবেষকেরা ইলেকট্রনিক স্কিন বা বিশেষ কৃত্রিম বৈদ্যুতিক ত্বক উদ্ভাবন করেছেন, যা স্পর্শের অনুভূতি সৃষ্টি করতে পারে। ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সিঙ্গাপুরের গবেষকেরা দাবি করেছেন, তাঁদের উদ্ভাবন প্রস্থেটিক বাহু বা কৃত্রিম বাহুতে বস্তু শনাক্তকরণ ও স্পর্শের বিশেষ অনুভূতি সৃষ্টি করতে সক্ষম হবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গবেষকেদের তৈরি কৃত্রিম ডিভাইসটিকে বলা হচ্ছে অ্যাসিনক্রোনাস কোডেড ইলেকট্রনিক স্কিন বা এসিইএস। এটি ১০০টি ক্ষুদ্র সেন্সরযুক্ত এক বর্গ সেন্টিমিটার আকারের একটি ডিভাইস।

গবেষকেরা দাবি করেছেন, তাদের তৈরি ডিভাইসটি দ্রুত তথ্য প্রক্রিয়াকরণ করতে পারে। এটি মানুষের স্নায়ুতন্ত্রের চেয়েও দ্রুত কাজ করে। এটি ব্রেইল অক্ষর ৯০ শতাংশ নিখুঁতভাবে পড়তে পারে এবং ২০ থেকে ৩০ ধরনের গঠনবিন্যাস শনাক্ত করতে পারে।

গবেষক দলের নেতৃত্বে থাকা বেঞ্জামিন টি বলেন, কোনো বয়নবিন্যাস শনাক্ত করতে মানুষকে ঘষা দিতে হয় কিন্তু এই কৃত্রিম ত্বক একবার স্পর্শেই তা বুঝতে পারে। এর এআই অ্যালগরিদম ডিভাইসটিকে দ্রুত শিখতে সাহায্য করে।

গবেষক টি বলেন, যখন কেউ স্পর্শ ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে, তখন তার অঙ্গ অসাড় হয়ে যায়। কৃত্রিম বাহু ব্যবহারকারী ব্যক্তিরা এ সমস্যায় পড়েন। এ ক্ষেত্রে কৃত্রিম ত্বক কৃত্রিম বাহুতে স্পর্শের অনুভূতি তৈরি করতে পারে। তাদের এ ডিভাইসের ধারণা মূলত ‘স্টার ওয়ার্স’ চলচ্চিত্রের দৃশ্য থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি করা।

গবেষকেরা বলেন, তাঁদের তৈরি প্রযুক্তিটি এখনো পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে। তবে এ উদ্ভাবন নিয়ে চিকিৎসক সম্প্রদায়ের ব্যাপক আগ্রহ দেখা যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন