বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গত বছরের অক্টোবরে চালুর পর একটি ভিনটেজ ই-বাইকের পরীক্ষামূলক সংস্করণ বা প্রোটোটাইপ দেখায় সিরিয়াল ১। এস১ মশ/ট্রিবিউট মডেলটির সুবিধাগুলো সেই প্রোটোটাইপের সঙ্গে অনেকাংশে মিলে যায়।

সিরিয়াল ১-এর প্রদর্শিত প্রথম ই-বাইকটির অনুপ্রেরণা নেওয়া হয় হার্লি-ডেভিডসনের প্রথম মোটরসাইকেল থেকে। সেটি ১৯০৩ সালে বাজারে এসেছিল। সে মোটরসাইকেলটিই ই-বাইক ব্র্যান্ড সিরিয়াল-১ প্রতিষ্ঠার অনুপ্রেরণা।

সিরিয়াল ১-এর ই-বাইকটির সঙ্গে প্রোটোটাইপের মিল থাকলেও প্রোটোটাইপের মতো চমৎকার নয় বলে মনে করছেন অনেকে। তবে ভিনটেজ বাইকের সৌন্দর্য ফিরে পাবে।

‘এস১ মশ/ট্রিবিউট’ মডেলের ই-বাইকের নকশা যেমন

নকশার কথা বললে বাইসাইকেলটিতে সাদা টায়ার, চামড়ার সিট ও গ্রিপ এবং কালো কাঠামো ব্যবহার করা হচ্ছে। হাইড্রোলিক ডিস্ক-ব্রেক থাকবে, সামনে হেডলাইটও আছে।

সিরিয়াল ১-এর তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে বৈশ্বিক ই-বাইকের বাজার দেড় হাজার কোটি ডলারের বেশি ছিল বলে মনে করা হয়। ২০২০ থেকে ২০২৫ সাল পর্যন্ত এই বাজারে প্রবৃদ্ধি হার থাকবে ৬ শতাংশ।

গাড়ি তৈরির প্রতিষ্ঠানগুলোও ই-বাইক তৈরিতে মনোযোগী হচ্ছে। প্রকাশিত সংবাদ প্রতিবেদন অনুযায়ী ই-বাইক ও মোটরসাইকেল তৈরির প্রকল্প হাতে নিয়েছে বিএমডব্লিউ, ইলেকট্রিক মাউন্টেন বাইক বানাচ্ছে অডি, একটি ইলেকট্রিক স্কুটার দেখিয়েছে মার্সিডিজ-বেঞ্জ, ই-স্কুটার তৈরির প্রতিষ্ঠান স্পিন কিনে নিয়েছে ফোর্ড, আর ইলেকট্রিক মাউন্টেন বাইক তৈরি শুরু করেছে জিপ।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন