বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

১ কোটি ডলার বা প্রায় ৮৬ কোটি টাকার এই পুরস্কার দেওয়া হবে যদি কারও দেওয়া তথ্যের সূত্র ধরে ওই হ্যাকারদলের নেতৃস্থানীয় কাউকে শনাক্ত অথবা অবস্থান চিহ্নিত করা যায়।

ডার্কসাইডের ক্ষেত্রে ৫০ লাখ ডলারের আরেকটি পুরস্কারের ঘোষণা এসেছে। সে ক্ষেত্রে ডার্কসাইড র‍্যানসমওয়্যার হামলার ষড়যন্ত্র করছে এমন কাউকে গ্রেপ্তারে সাহায্য করতে হবে।

কলোনিয়াল পাইপলাইনে সে সাইবার হামলায় প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম কয়েক দিনের জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

শেষমেশ ৪৪ লাখ ডলার মূল্যমানের বিটকয়েন দিয়ে সে যাত্রায় পাইপলাইনটি আবারও সচল হয়। অবশ্য কলোনিয়াল পাইপলাইনের দেওয়া সে বিটকয়েনের (৬৩ দশমিক ৭ বিটকয়েন) সিংহভাগ পরবর্তী সময় উদ্ধারের দাবি করেছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

ক্রিপ্টোকারেন্সি বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান এলিপটিকের অনুমান অনুযায়ী, র‍্যানসমওয়্যার হামলার শিকার ৪৭ ভুক্তভোগীর কাছ থেকে সব মিলিয়ে নয় কোটি ডলার পেয়েছে ডার্কসাইড।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন