default-image

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য, প্রযুক্তি ও সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ২০৩০ সালের মধ্যে ষষ্ঠ প্রজন্মের ইন্টারনেট সেবা বা ৬জি নেটওয়ার্ক চালু করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির রোটেটিং চেয়ারম্যান এরিক শু। চীনের শেনজেনে অনুষ্ঠিত হুয়াওয়ে গ্লোবাল অ্যানালিস্ট সামিটে সম্প্রতি শু এই ঘোষণা দেন বলে মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ে শিল্প খাতে ৬জি উন্মোচনের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে। আর এ জন্য ৬জি নিয়ে একটি বিশেষ শ্বেতপত্র (হোয়াইট পেপার) প্রকাশিত হতে যাচ্ছে। এ শ্বেতপত্র প্রযুক্তি খাতে নিয়ন্ত্রক ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ও প্রতিষ্ঠানকে এ প্রযুক্তি সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সহায়তা করবে। শিগগিরই শ্বেতপত্রটি উন্মোচন করা হবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হুয়াওয়ে বর্তমানে ৬জি–সম্পর্কিত দুটি বিষয় নিয়ে কাজ করছে। শু বলেন, ‘প্রথমত,৬জি আসলে কী, তা নিরূপণে আমরা শিল্প খাত সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কাজ করছি। ৬জি কেমন হবে, সে ব্যাপারে আমরা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এবং গ্রাহকদের সঙ্গে আলোচনা করতে চাই। দ্বিতীয়ত, আমাদের লক্ষ্য এবং ৬জির সম্ভাব্য সংজ্ঞা অনুসারে, আমরা মৌলিক বিজ্ঞান ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণা করছি, যাতে আমরা একসঙ্গে ৬জির বিষয়ে যে কাজ করছি, তার গুরুত্ব অনুধাবন করতে পারি।’

হুয়াওয়ে বিশ্বের ১৭০টির বেশি দেশ ও অঞ্চলে সেবা দিচ্ছে, যা বিশ্বের এক-তৃতীয়াংশ জনসংখ্যার সমান। ১ লাখ ৯৪ হাজারের বেশি কর্মী নিয়ে বিশ্বব্যাপী টেলিযোগাযোগ অপারেটর, উদ্যোক্তা ও গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করে ভবিষ্যতের তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক সমাজ তৈরির লক্ষ্যে হুয়াওয়ে এগিয়ে চলেছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এখন টেলিযোগাযোগ খাতে ৫জি প্রযুক্তি চালুর পথে রয়েছে। বাংলাদেশে ২০২৩ সালের মধ্যে ৫জি চালুর চিন্তা নিয়ে এগোচ্ছে সরকার।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন