বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বন্ধু অক্ষয় কুমার লিখেছেন, ‘আমার মনে আছে সে সময়ের কথা। দোস্ত, তুই আর আমি জুহু সৈকতে মার্শাল আর্ট শিখতাম। তোর আব্বা শেখাতেন। দেখতে দেখতে ৩০ বছর কেটে গেছে। সময় চলে যায়, বন্ধুত্ব থেকে যায়!’

কেমন ছিল ৩০ বছরের এই যাত্রা? অজয় দেবগন এক সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি জানিয়েছেন তাঁর বলিউড সফরের নানান অধ্যায়ের কথা। বলেছেন, শুরুতে বড় পরিসরেই ভেবেছিলেন তিনি। অর্থাৎ স্বপ্নটা অনেক বড় ছিল। অবশ্য মূলত স্বপ্নটা ছিল বাবার। ছেলে বলিউডে যাবেন, সুপারস্টার হবেন—এই ছিল বীরু দেবগনের স্বপ্ন।
প্রথম ছবিতে দারুণ পরিশ্রম করেছিলেন তিনি। ছবির প্রতিটি বিষয় খুব যত্নের সঙ্গে করেছিলেন।

default-image

বিশেষ করে বাইকের দৃশ্যটির কথা মনে করছেন তিনি। বলিউডের অন্যতম সেরা এই অ্যাকশন দৃশ্য তো সুপারহিট। অজয় বলেন, ওই সময় যেন একটা উন্মাদনা কাজ করত।

তিনি জানান, কলেজজীবনে একাই দুটি বাইক চালাতে পারতেন তিনি। দুটি ঘোড়াও ‘চালাতে’ পারতেন। সিনেমাতেও এ রকম চরিত্রে তাঁকে একাধিকবার দেখা গেছে।

default-image

প্রথম ছবির পর একে একে করেছেন ‘সংগ্রাম’, ‘শক্তিমান’, ‘কানুন’, ‘বেদরদি’। এসব ছবিতে তাঁকে নায়কের ভূমিকায় দেখা যায়নি, ছবিগুলোও সাড়া ফেলেনি। প্রথম দিকে পরিচালকেরা তাঁকে পার্শ্বচরিত্রের জন্য ভাবতেন। অনায়কোচিত চেহারা, গায়ের রঙের কারণে সেই সময় পরিচালকেরা অজয়কে ঠিক পাত্তা দিতেন না। তবে মহেশ ভাটের সঙ্গে পরিচয়ের পর তাঁর ভাগ্যের চাকা ঘুরে যায়। এই পরিচালকের ‘জখম’ ছবিতে অভিনয় করে হইচই ফেলে দেন অজয় দেবগন। এই ছবির জন্য জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছিলেন। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

default-image

অজয় দেবগন জানান, বলিউডে প্রথম পা রাখার সময় থেকেই তাঁর শেখার শুরু। প্রতিদিন বলিউড থেকে কিছু না কিছু শিখছেন। আজও শেষ হয়নি সেই শিক্ষা।

default-image

তাঁর ভাষায়, ‘চেষ্টা করছি ভুল শুধরে নিয়ে প্রতিদিন একটু একটু করে শিখে সময়ের চ্যালেঞ্জটাকে জয় করতে। আমার চেষ্টা আমি করছি। বাকিটা দর্শকদের হাতে ছেড়ে দিয়েছি।’ তবে সময়ের স্রোতে গা ভাসাননি অজয়। নিজেকে বদলাননি। এমন নয় যে নিজের চুলের স্টাইল পাল্টে পাল্টে কখনো দর্শকদের সামনে হাজির হয়েছেন। তাঁর মতে, ‘আমি যেমনই, ভক্তরা আমাকে আমার মতোই গ্রহণ করুক। এতেই আমি তুষ্ট।’
আগামী ছবি ‘থ্যাঙ্ক গড’-এর মুক্তির দিন ঘোষণা করেছেন অজয়। জানিয়েছেন, আগামী বছরের ২৯ জুলাই ছবিটা মুক্তি পাবে। অজয় দেবগন ছাড়াও এই ছবিতে আছেন রাকুলপ্রীত সিং ও সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। ‘থ্যাঙ্ক গড’ দিয়ে বলিউডে যাত্রা হবে সিংহলি গায়িকা ইওহানিওর।

default-image

অজয় দেবগনের হাতে এই মুহূর্তে রয়েছে একাধিক ছবির কাজ। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘ট্রিপল আর’, ‘গাঙ্গুবাঈ কাঠিয়াবাড়ি’, ‘দৃশ্যম টু’-এর মতো ছবির কাজ।

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন