বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

সবার সঙ্গে না মিললেও হুমায়ুন ফরীদির সঙ্গে আমার মিলেছিল। তাঁর খাদ্যাভ্যাস, দুষ্টুমির ধরন, রসবোধ, আচরণ, পাগলামি যখন কাছ থেকে দেখেছি; মনে হয়েছে কী আশ্চর্য—এই মানুষটা তো আমার মতো! অভিনয় নিয়ে আমি খুব সিরিয়াস ছিলাম না। ফরীদি ভাই মাঝেমধ্যে টুকটাক টোটকা দিতেন। বলতেন, ‘নিশো, ডোন্ট ট্রাই টু অ্যাক্ট। অভিনয় করার চেষ্টা কোরো না। স্বাভাবিক থাকো। শুধু ঠিকঠাক রিঅ্যাকশন দাও।’

তিনি ছিলেন আমার গুরু, বন্ধু, বাবা। অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদিকে চেনার আগেই আমি ব্যক্তি হুমায়ুন ফরীদির প্রেমে পড়েছিলাম। চলে যাওয়ার পরই তিনি যেন আমার ওপর আরও বেশি করে ভর করলেন। এখনো মাঝেমধ্যে স্বপ্নে হাজির হন, আড্ডা দেন, সাহস দেন। মনে আছে লোটাকম্বল নামে একটা নাটক করার আগে আমি খুব দুশ্চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলাম। কীভাবে কী করব, বুঝতে পারছিলাম না। রাতে ফরীদি ভাইকে স্বপ্নে দেখলাম। তিনি বললেন, ‘তুই পারবি।’ পরদিন আমি একটুও আটকে যাইনি।

আমার জীবনের এই সময়টাতেই তাঁকে সবচেয়ে দরকার ছিল। যদি আবার তাঁর সঙ্গে দেখা হতো, কিছুতেই তাঁকে যেতে দিতাম না। কখনোই ছাড়তাম না।

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন