default-image
default-image

ছোট্ট মেয়েটির এক হাতে উঁচু করে ধরা পুরস্কার, আরেক হাত চোখের পানি মুছতে ব্যস্ত। এই দৃশ্যই ৬৫তম বার্লিন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের স্মারক হয়ে থাকল।
সেরা চলচ্চিত্র হিসেবে গোল্ডেন বিয়ার পুরস্কার জিতেছে ইরানের পরিচালক জাফর পানাহির ট্যাক্সি। ২০১০ সালে ইরানে তাঁর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের আইনবিরুদ্ধ মতবাদ প্রচারের অভিযোগ আনা হয়। ভিনদেশে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা থাকায় উৎসবে হাজির হতে পারেননি ভিন্নধারার এই পরিচালক। জাফর পানাহির পক্ষ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেছে তাঁর ভাতিজি হানা সায়েদি। মঞ্চে সোনালি ভালুক হাতে আবেগাপ্লুত হয়ে সে বলেছে, ‘আমি এই অনুভূতি প্রকাশ করতে পারব না...।’

default-image

বুড়ো হাড়ের ভেলকি দেখিয়েছেন টম কোর্টিনে এবং শার্লট র্যা পলিং! ফরটি ফাইভ ইয়ারস চলচ্চিত্রের এই জুটি জিতেছেন ‘সোনালি ভালুক’ অর্থাৎ সেরা অভিনয়শিল্পীর পুরস্কার। জুরিবোর্ডের বিচারে সেরা পরিচালকের পুরস্কার পেয়েছেন রোমানিয়ার রাদু জুদে ও পোল্যান্ডের মালগোজাতা সুমোস্কা। তাঁরা মনোনয়ন পেয়েছিলেন যথাক্রমে আফেরিম ও বডি চলচ্চিত্রের জন্য। দ্য পার্ল বাটন তথ্যচিত্রের জন্য সেরা চিত্রনাট্যের পুরস্কার গেছে চিলির পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার প্যাট্রিসিও গুজম্যানের ঝুলিতে।

default-image

বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবের সবচেয়ে সম্মানসূচক গোল্ডেন বিয়ারটি এ বছর তুলে দেওয়া হয় জার্মান চলচ্চিত্র পরিচালক উইম ওয়েন্ডার্সের হাতে। পাশাপাশি তাঁর ছবি এভরিথিং উইল বি ফাইন উৎসবে প্রতিযোগিতাবহির্ভূত ছবি হিসেবেও প্রদর্শিত হয়।
১৫ ফেব্রুয়ারি বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। চলচ্চিত্র উৎসবটি শুরু হয় ৫ ফেব্রুয়ারি।

বিজ্ঞাপন
বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন