‘মেঘে মেঘে নীলপরি/ সেজেছে আজ অপ্সরী...জন্মদিন, আজ জন্মদিন তোমার...।’ যাঁর জন্মদিন উপলক্ষ করে এ গান, তিনি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। গানের কথায়ও যেন ফুটে উঠেছে সেই সময় আর প্রকৃতি। মৈত্রেয়ী সুমীর কথা ও সুরে এ গান গাইলেন শিবনাথ ভট্টাচার্য।
গানের পেছনের গল্প জানাতে গিয়ে মৈত্রেয়ী বলেন, ‘অনেক গান আর সুরের মধ্যে বেঁচে আছেন কবিগুরু। আমরা আমাদের মতো করে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতেই এ গান।’ গতকাল রোববার সিলেট নগরের পশ্চিম দরগা গেট এলাকার একটি রেস্তোরাঁর মিলনায়তন যেন হয়ে উঠেছিল মৌলিক গানের এক জলসাঘর।
বিকেল থেকে সন্ধ্যারাত কাটে গানে আর গল্পে। ‘চন্দ্রাহত গানের দল’ নামের গানপিয়াসী তরুণদের মিলিত আয়োজনে হয় ‘চন্দ্রাহতের গান ও গল্প’। গতকালই আধখানি ভালোবাসা নামে চন্দ্রাহত গানের দলের মৌলিক গানের প্রথম অ্যালবামের আত্মপ্রকাশ হয়। অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচনকে উপলক্ষ করে ছিল ওই অনুষ্ঠান। সঞ্চালনা করেন মৈত্রেয়ী সুমী। ছিল দল সম্পর্কে একটি পাওয়ার প্রেজেন্টেশন।
মৈত্রেয়ীর লেখা ও সুরের গান ছাড়াও অ্যালবামে অনুপ কিশোর, তুহিন বড়ুয়া, অমিত দে, শিবনাথ ভট্টাচার্যের গান রয়েছে। পাঁচজনের মধ্যে চারজন মেডিকেল কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী, একজন প্রকৌশলী। পেশার ব্যস্ততার মধ্যে বছরব্যাপী প্রচেষ্টার ফসল তাঁদের গান ও দল।
আধখানি ভালোবাসা থেকে বেছে বেছে গাওয়া হয় পাঁচটি গান। ‘জন্মদিন’ দিয়ে শুরু করে শেষে ‘জটিলমূর্তি’ শিরোনামের গান। গেয়েছেন তুহিন বড়ুয়া। কথা ও সুর তাঁরই। গানটি লেখার গল্প জানিয়ে শুরু হয় ‘জটিলমূর্তি’র পরিবেশনা—‘কাল খুলবে শহুরে গল্প যন্ত্র কথার ঝুলি’।

বিজ্ঞাপন
বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন