শীর্ষ প্রবণতা ২০১৪: ২০১৪ সালে টেলিভিশনের অনেক অভিনয়শিল্পীই ব্যস্ত ছিলেন বাণিজ্যিক ঘরানার ছবিতে জায়গা করে নেওয়ার কাজে। ছোট পর্দায় তাঁদের দেখা গেছে কালেভদ্রে। অভিনয়শিল্পীদের এই
প্রবণতা নিয়েই আজকের প্রতিবেদন

default-image

নাসির উদ্দীন ইউসুফের গেরিলা দিয়ে শুরু করেছিলেন বড় পর্দায় যাত্রা। এরপর অভিনয়শিল্পী জয়া আহসানকে ছোট পর্দায় দেখা গেছে কমই।
২০১৪ সালেও বছরজুড়ে জনপ্রিয়তম এই অভিনেত্রীকে টেলিভিশনের নতুন কোনো নাটকে দেখা যায়নি বললেই চলে।
এ বছরই তাঁর এক সাক্ষাৎকারে জয়া আহসান বলেছিলেন, ‘ভালো চরিত্র ও গল্প পেলে অবশ্যই নাটক আর টেলিছবিতে অভিনয় করব।’ সেই ভালো চরিত্রের দেখা সম্ভবত জয়া বছরজুড়ে পাননি। আর সে কারণেই টেলিভিশন এক অর্থে বঞ্চিতই থেকে গেছে তাঁর কাজ থেকে।
তবে টেলিভিশন তারকাদের বড় পর্দামুখী এই স্রোতে জয়া একা নন। থাকতে পারেন বিদ্যা সিনহা মিম, আনিসুর রহমান মিলন, মম, আরিফিন শুভর মতো তারকারাও। পর্দাবদলের পালায় ব্যস্ত ছিলেন কমবেশি সবাই।
একটা সময় মমকে নাটক-টেলিফিল্মে দেখা যেত হরহামেশাই। কিন্তু এখন উৎসব পার্বণ ছাড়া এই অভিনেত্রীকে আর আগের রূপে দেখা যায় না। তিনি এখন এক অর্থে বাণিজ্যিক ছবির নায়িকা। এ বছরই এই অভিনেত্রীকে দেখা গেছে রুপালি পর্দায় প্রেম করবো তোমার সাথে ছবিটিতে। মমর আরও একটি ছবি ছুঁয়ে দিলে মন রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়।

default-image

একই পথের পথিক বিদ্যা সিনহা মিমও। তিনিও চলচ্চিত্রে মন বসাতে কমিয়ে দিয়েছেন নাটক-টেলিছবির কাজ। এ বছরের বেশির ভাগ সময়ই তিনি দিয়েছেন তাঁর ছবি পদ্মপাতার জল, সুইটহার্ট ও গুডমর্নিং লন্ডন ছবির জন্য। সেই সঙ্গে বাণিজ্যিক ছবির আইটেম গানেও এ বছরই তাঁকে দেখা গেছে। মিম অভিনীত জোনাকির আলো ছবিটি মুক্তি পায় বছরের শুরুর দিকে। তাঁর তারকাঁটা ছবিটি মুক্তি পেয়েছে বছরের মধ্যভাগে। ছোট পর্দায় তাঁর এ বছরের উল্লেখযোগ্য কাজ ছিল নারী সুন্দরী। সেও ছয় মাস আগের কথা।
আপাতত বড় পর্দার কাজ নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। মিম বলছিলেন, ‘সুইট হার্ট, গুড মর্নিং লন্ডন ও পদ্মপাতার জল’—এই তিনটি ছবির শুটিং নিয়েই ব্যস্ত আছি। এই মুহূর্তে ছোট পর্দার কোনো কাজ করছি না। তবে সময় বলে দেবে ছোট পর্দায় কাজ করব কি না। ’
টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন।
এ বছরে বড় পর্দায় তাঁর অবস্থান শক্ত করেছে অনেক সাধের ময়নার মতো পুরোপুরি বাণিজ্যিক ছবিতে অভিনয়। মিলন জানিয়েছেন, ছোট পর্দা ছাড়ছেন না তিনি। তবে আপাতত কাজের অনেকটা অংশজুড়ে তিনি শুধু চলচ্চিত্রকেই রাখতে চাইছেন।
এ বছরের আলোচিত নায়ক আরিফিন শুভ। তিনি এক অর্থে ঘোষণা দিয়েই ছোট পর্দার কাজে ইস্তফা দিয়েছিলেন। সেখানে আর ফিরতে দেখা যায়নি তাঁকে। তারকাঁটা বা কিস্তিমাত-এর মতো ছবি দিয়ে বড় পর্দাকেই ঠিকানা বানিয়েছেন তিনি।
বড় পর্দামুখী এই স্রোতে আসতে পারে ইমন, নিরব বা আহমেদ রুবেলের মতো অনেক অভিনয়শিল্পীর নামও।
পর্দা বদল করে তারকারা কে কতটা সাফল্যের দেখা পান সেটাই এখন দেখার। অথবা সময়ই হয়তো বলে দেবে কার জন্য কোন মাধ্যম বেশি মানানসই।

বিজ্ঞাপন
বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন