‘একুশ বহিব মনে-সকল শুভক্ষণে’ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় অনির্বাণ থিয়েটারের আয়োজনে সপ্তাহব্যাপী একুশে মেলা ও নাট্য উৎসব শুরু হয়েছে। দর্শনা পৌর মাঠে রোববার সন্ধ্যা সাতটায় মুক্তিযোদ্ধা-জনতার সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত ও ঢাকের তালে উৎসবের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। একুশে ফেব্রুয়ারি সকালে প্রভাতফেরিসহ দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উৎসবের সমাপনী টানা হবে।

অনির্বাণের সভাপতি ফজলুল হকের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, আবদুস সবুর, রুস্তম আলী, আবদুর রহমান প্রমুখ।
আয়োজকেরা জানান, চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি অনির্বাণ প্রতিষ্ঠার ৩২ বছর এবং একুশে মেলা ও নাট্য উৎসবের ২২ বছর পূর্ণ করছে। ১৫ থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অনির্বাণের দুটিসহ পাঁচটি দলের ছয়টি নাটক দর্শকের নতুন ও ভিন্ন ভিন্ন স্বাদ দেবে।
নাট্য উৎসবের প্রথম দিন রোববার দর্শনা অনির্বাণ থিয়েটার প্রযোজিত নাটক জিষ্ণু যারা পরিবেশিত হয়। গতকাল সোমবার রাতে মঞ্চস্থ হয় চুয়াডাঙ্গার অরিন্দম থিয়েটারের নাটক অহম তমসায়। আজ মঙ্গলবার অংকুর নাট্য একাডেমির নাটক শিখণ্ডী কথা পরিবেশিত হবে।
নাটকের পাশাপাশি দর্শনা লালন একাডেমি, ওমেন্স ক্লাব ও খুলনা বেতারের তালিকাভুক্ত শিল্পীদের অংশগ্রহণে প্রতিদিন সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হচ্ছে। হস্ত ও কুটিরশিল্পসহ বিভিন্ন পণ্যের শতাধিক স্টলে সাজানো মেলায় অনুষঙ্গ হিসেবে আরও রয়েছে নাগরদোলা, মিনি চিড়িয়াখানাসহ বিনোদনের নানা ব্যবস্থা।

বিজ্ঞাপন
বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন