default-image

ভারতের বাংলা চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় এবার বাংলাদেশের ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন। রোহিঙ্গা নামের এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তাঁর সঙ্গে নির্মাতার কথাবার্তা চূড়ান্ত হয়েছে। গতকাল রোববার প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে শাশ্বতও বাংলাদেশি ছবিতে তাঁর অভিনয়ের ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন।
কলকাতা থেকে মুঠোফোনে শাশ্বত বলেন, ‘বাংলাদেশের ছবি সম্পর্কে মোটামুটি একটা ধারণা আছে। যৌথ প্রযোজনার সুযোগে আমাদের এখানকার অনেক অভিনয়শিল্পী বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে কাজ করছেন। রোহিঙ্গার মাধ্যমে প্রথমবারের মতো আমি বাংলাদেশের কোনো ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছি। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এপ্রিলে আমার বাংলাদেশে যাওয়া হবে।’
শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় কালপুরুষ উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে একটি ধারাবাহিকে প্রথম অভিনয় করেন। সন্দ্বীপ রায় পরিচালিত ফেলুদায় অভিনয় তাঁকে আলোচনায় নিয়ে আসে। ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সুজয় ঘোষের কাহানি ছবিতে অভিনয়ের পর তাঁর জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে যায় বলিউডেও। সাম্প্রতিক ছবি মেঘে ঢাকা তারাতে ঋত্বিক ঘটকের চরিত্রে অভিনয় করেও প্রশংসিত হন তিনি।
রোহিঙ্গা ছবিটির পরিচালক সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড। তিনি বলেন, ‘আমার সিনেমার একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের জন্য শুরু থেকেই শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের কথা ভেবেছিলাম। কলকাতায় তাঁর সঙ্গে আলাপ করার পর গল্পটি পছন্দ করেন। পছন্দের অভিনয়শিল্পী রাজি হওয়ায় কাজটা আরেকটু সহজ হয়ে এল।’ পরিচালক জানান, টেকনাফ ও কক্সবাজারের সীমান্তবর্তী এলাকায় রোহিঙ্গা সিনেমার দৃশ্য ধারণের কাজ করা হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0