default-image

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতির (বাচসাস) দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে নতুন নেতৃত্ব এসেছে। এবার সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ফাল্গুনী হামিদ আর সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবু। নির্বাচিত ব্যক্তিরা আগামী দুই বছর (২০১৯-২১) চলচ্চিত্র সাংবাদিকদের ঐতিহ্যবাহী এই সংগঠনকে নেতৃত্ব দেবেন।

গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এই ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এরপর সারা রাত ভোট গণনা শেষে আজ শনিবার সকাল পৌনে ছয়টায় ফলাফল ঘোষণা করেন এই নির্বাচনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আলিমুজ্জামান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার এরফানুল হক নাহিদ, মাহাবুবুর রহমান, কানাই চক্রবর্তী ও আবুল হোসেন মজুমদার।

বাচসাসের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে ঘোষিত ফলাফল থেকে জানা গেছে, সভাপতি ফাল্গুনী হামিদ পেয়েছেন ৩৬৫ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী ফারুক বাবুল পেয়েছেন ৮৬ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে কামরুজ্জামান বাবু পেয়েছেন ১৬১ আর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শপথ চৌধুরী পেয়েছেন ১৫৯ ভোট।

নির্বাচনে অন্য বিজয়ীরা হলেন সহসভাপতি বাদল আহমেদ (২৪৬) ও সৈকত সালাউদ্দিন (২২৮), সহসাধারণ সম্পাদক রিমন মাহফুজ (২৫৭), অর্থ সম্পাদক মঈন আবদুল্লাহ (২৪২), সাংগঠনিক সম্পাদক রাহাত সাইফুল (২৫৯), আন্তর্জাতিক ও গবেষণা সম্পাদক শফিকুল আলম মিলন (২৬১), ক্রীড়া সম্পাদক মুজাহিদ সামিউল্লাহ (২৩০), সমাজ কল্যাণ ও মহিলাবিষয়ক সম্পাদক শ্রাবণী হাওলাদার (২৯৫), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সুফিয়ান রতন (২৫৬) এবং দপ্তর সম্পাদক নিপু বড়ুয়া (২৩৬)।

বিজয়ী নির্বাহী সদস্যরা হলেন লিটন এরশাদ, আবিদা নাসরিন কলি, ইব্রাহিম খলিল খোকন, অঞ্জন রহমান, রেজাউল করিম রেজা, তুষার আদিত্য, মাহমুদ মানজুর, ইরানী বিশ্বাস ও লিটন রহমান।

বাচসাসের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে ২১ পদের বিপরীতে ৪৬ জন প্রার্থী অংশ নেন। ভোটার সংখ্যা ৫৩৯। এর মধ্যে ৪৬৭ জন ভোট দিয়েছেন।

বাচসাস ১৯৬৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। তখন সংগঠনটির নাম ছিল ‘পাকিস্তান চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি’। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর সংগঠনটির নাম পরিবর্তন করা হয় ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি’।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন