বাধ্য হয়ে টেলিভিশনে সিনেমার মুক্তি

বিজ্ঞাপন
default-image

কথা ছিল ২৭ মার্চ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে ‘আমার মা’ সিনেমাটি। কিন্তু করোনাভাইরাসের বিস্তারের মুখে প্রেক্ষাগৃহগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়। মুক্তি আটকে যায় ছবিটির। প্রায় চার মাস ধরে সিনেমা হল বন্ধ। কবে খুলবে, তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই। অপেক্ষা না করে শেষ পর্যন্ত এই ঈদে বেসরকারি চ্যানেল এটিএন বাংলায় মুক্তি দেওয়া হলো ‘আমার মা’। আজ ঈদের দ্বিতীয় দিন দুপুরে ছবিটির প্রিমিয়ার।

ছবিটির প্রযোজক মাহবুবা শাহরিন বলেন, ‘হলের জন্যই ছবিটি বানিয়েছিলাম। সেই বাজেটও খরচ করেছিলাম ছবিটিতে। প্রেক্ষাগৃহ মুক্তির তারিখও ঠিক করেছিলাম। তার আগেই হল বন্ধ হয়ে গেল। এখনো খোলার কোনো সিদ্ধান্ত দেখা যাচ্ছে না। বাধ্য হয়েই টেলিভিশনে মুক্তি দিলাম। এতে বিনিয়োগ লোকসান হবে না? জানতে চাইলে এই প্রযোজক বলেন, আগেই বিনিয়োগ লোকসানের কথা বলা যাচ্ছে না। কিছু স্পনসর আছে। তা ছাড়া ইউটিউব ও অ্যাপে বিক্রি করেছি। প্রেক্ষাগৃহ খুললে পরবর্তী সময়ে সেখানেও মুক্তি দেব। প্রেক্ষাগৃহ থেকে কেমন আয় আসবে, তাও তো এখনই বলা যাচ্ছে না। দেখা যাক কী হয়।’

default-image

ছবিটি পরিচালনা করেছেন শাহরিয়ার নাজিম জয়। এর আগে ‘অর্পিতা’ ও ‘প্রার্থনা’ নামে দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে তাঁর। ‘পাপ পুণ্য’ নামে আরেকটি ছবি নির্মাণাধীন। মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি দুটি প্রেক্ষাগৃহেই মুক্তি পেয়েছে। এবারই এই পরিচালকের নতুন কোনো ছবি প্রেক্ষাগৃহের আগেই সরাসরি টেলিভিশনে মুক্তি পাচ্ছে। এ ব্যাপারে জয় বলেন, হলের জন্যই তো ছবিটি বানিয়েছিলাম। কিন্তু হল বন্ধ থাকার কারণে মুক্তি দেওয়া গেল না। টেলিভিশনে মুক্তি তেমন সমস্যা দেখছি না। নতুন সিনেমা হলে মুক্তির আগেই টেলিভিশনে মুক্তি পাচ্ছে, এটি বাংলা সিনেমার জন্য নতুন একটা মাত্রা পাবে।’

পরিচালক জানান, হৃদয়ছোঁয়া গল্পের সিনেমা এটি। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় সন্তান বড় হওয়ার পর মা-সন্তানের সম্পর্কের মধ্যে অনেক সংকট তৈরি হয়। সন্তানের কাছে সেই সম্পর্কের যুদ্ধের ছবি ‘আমার মা’। যেখানে অভিনয় করেছেন আনোয়ারা, সোহেল খান, হুমায়রা হিমু, ডি এ তায়েব, টুনটুনি (শিশু শিল্পী)।

default-image

সিনেমাটির একটি বিশেষ চরিত্রে অতিথি শিল্পী হিসেবে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা ববি। ছবিটি টেলিভিশনে মুক্তি প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘এর আগে আরও দুটি ছবিতে অতিথি চরিত্রে কাজ করেছি। ছবিগুলো প্রথমে প্রেক্ষাগৃহেই মুক্তি পেয়েছে। চলচ্চিত্রের সব শিল্পীরাই তো চান তাঁর ছবি প্রেক্ষাগৃহেই মুক্তি পাক আগে। কারণ, বড় পর্দায় ছবির আবেদনই আলাদা। এই ছবিটি পরিস্থিতির কারণেই টেলিভিশনে মুক্তি পাচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন