বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উত্তর আমেরিকার এই উৎসব সম্পর্কে অমিতাভ রেজা বলেন, ‘রিকশা গার্ল’ ছবির কলাকুশলীদের জন্য মিল ভ্যালি চলচ্চিত্র উৎসব বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, উৎসবটি মূলত উত্তর আমেরিকার উপকূলীয় অঞ্চলের একটি বুটিক চলচ্চিত্র উৎসব।

default-image

ঔপন্যাসিক মিতালি পারকিনসের লেখা ‘রিকশা গার্ল’ উপন্যাসটি উত্তর আমেরিকায় বিপুল সমাদৃত। ফলে এ অঞ্চলের দর্শকেরা চলচ্চিত্রটি দেখার অপেক্ষায় আছেন বহুদিন। এ কারণে চলচ্চিত্রটি নির্মাণের সময় প্রযোজক এরিক জে অ্যাডামস তাঁর দর্শকের কথা বিশেষভাবে মাথায় রেখেছিলেন। সেই দর্শকের কথা চিন্তা করেই বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নির্মিত হলেও চলচ্চিত্রটির বেশির ভাগ সংলাপ ইংরেজিতে।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন লেখিকা মিতালি পারকিনসের কিশোর উপন্যাস ‘রিকশা গার্ল’কে বড় পর্দার জন্য তৈরি করেছেন অমিতাভ রেজা চৌধুরী। ছবিটির কেন্দ্রে আছে নাইমা নামের এক কিশোরী। তার বাবা রিকশা চালাত। অসুস্থ হয়ে এখন ঘরেই থাকে। নাইমা মূলত রিকশায় রংতুলি দিয়ে নকশা করে।

default-image

বাবা অসুস্থ হওয়ায় সংসারের দায়িত্ব এসে পড়ে তার কাঁধে। একসময় সে পালিয়ে ঢাকায় চলে আসে। একটি বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ নেয়। কিন্তু কাজ তার ভালো লাগে না। সে রিকশা চালানো শুরু করে। তবে মেয়ে হওয়ায় রিকশা চালাতে গিয়ে নানা ঝামেলার সম্মুখীন হয় সে। তাই পুরুষের ছদ্মবেশ নেয়। মূল চরিত্র নাইমার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বাংলাদেশি তরুণ অভিনয়শিল্পী নভেরা রহমান।

default-image

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘রিকশা গার্ল’–এ  নাইমার মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নভেরার মা মোমেনা চৌধুরী। আরও আছেন চম্পা, নরেশ ভূঁইয়া, অ্যালেন শুভ্রসহ অনেকে। একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিয়াম আহমেদ।

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন