default-image

গারো জনগোষ্ঠীর প্রবীণ ব্যক্তি জনিক নকরেককে নিয়ে নির্মিত আসমা বীথির প্রামাণ্য চলচ্চিত্র পুরস্কৃত হলো যুক্তরাজ্যে। ‘গিত্তাল মি আচ্ছিয়া’ নামের এই চলচ্চিত্র যুক্তরাজ্যভিত্তিক ‘ডব্লিউআরপিএন উইমেন ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০২১’–এ ‘আউটস্ট্যান্ডিং এক্সিলেন্স’ ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃত হয়েছে।
কবি ও আলোকচিত্রী আসমা বীথির প্রথম চলচ্চিত্র এটি। ৩৬ মিনিটের এই চলচ্চিত্র এর আগে লিবারেশন ডকফেস্ট বাংলাদেশ (২০২১), ডকুমেন্টারি ফিল্মমেকার শোকেস (২০২১), আইক্যান-হান্না ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালসহ (২০২১) দেশ-বিদেশের বেশ কয়েকটি উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছে।

default-image
বিজ্ঞাপন

চার বছর আগে শুরু হওয়া চলচ্চিত্রের নির্মাণকাজ শেষ হয় ২০২০ সালে। ‘গিত্তাল মি আচ্ছিয়া’র চিত্রগ্রহণ, গবেষণা, পাণ্ডুলিপি প্রস্তুত ও পরিচালনা করেছেন আসমা বীথি। সম্পাদনা করেছেন পঙ্কজ চৌধুরী রনি।

default-image

এই চলচ্চিত্রের কেন্দ্রীয় চরিত্র জনিক নকরেককে গারো বা মান্দি জনগোষ্ঠীর জীবন্ত কিংবদন্তি বলা হয়। গারোদের আদি ধর্ম সাংসারেক চর্চাকারীদের মধ্যে যে কজন বেঁচে আছেন, তিনি তাঁদের একজন। তাঁর জন্ম তৎকালীন অবিভক্ত ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে হলেও ছোটবেলা থেকেই বসবাস করেন টাঙ্গাইল জেলার মধুপুরের চুনিয়া গ্রামে।

default-image

জনিক নকরেককে অনুসরণ করতে করতে যেন গোটা মান্দি সম্প্রদায়ের হৃদয়ের ছবিটাও দেখা হয়ে যায় দর্শকের। ফসল রক্ষায় উল্কার দেবতা রাক্কাশি মিদ্দির আমুয়া (পূজা), জনিকের স্মৃতিচারণা, মান্দিদের দলগত নাচ যেন একটানে চুনিয়ায় নিয়ে যায় দর্শককে।

বিজ্ঞাপন
বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন