default-image

রানাঘাট স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে বসে লতা মঙ্গেশকরের ‘এক প্যায়ার কা নাগমা হ্যায়’ গানটি গেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে রাতারাতি আলোচিত হন রানু মণ্ডল। এরপর তাঁকে দিয়ে ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হির’ ছবিতে গান করিয়েছেন হিমেশ রেশমিয়া। বলিউডের এই জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও সুরকার সম্প্রতি ছবির ‘তেরি মেরি’ গান প্রকাশ অনুষ্ঠানে রানু মণ্ডলকে সাংবাদিকদের সামনে নিয়ে আসেন। এখন রানু মণ্ডল ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলোতে খুব আলোচিত একজন নারী। প্রায় প্রতিদিন তাঁকে নিয়ে অন্তত একটি খবর থাকা চাই। কারণ রানু মণ্ডলের ব্যাপারে রয়েছে পাঠকদের দারুণ আগ্রহ।

এবার ‘ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’ আর ‘জি ২৪ ঘণ্টা’ থেকে জানা গেছে, রানু মণ্ডলের জীবনের গল্প নিয়ে পরিচালক হৃষিকেশ মণ্ডল ছবি তৈরি করবেন। শুধু পরিকল্পনা নয়, এরই মধ্যে রানু মণ্ডলের সঙ্গে চুক্তি হয়ে গেছে। এই দুটি সংবাদমাধ্যমকে হৃষিকেশ মণ্ডল বলেছেন, ‘গত মঙ্গলবার রানুদির সঙ্গে দেখা হয়েছে, কথা হয়েছে। প্রায় ৪৮ ঘণ্টা রানাঘাটে থাকার পর তাঁর সঙ্গে দেখা হলো। মাটির মানুষ। বারবার বলেছেন, “আমার জীবনী ফুটিয়ে তুলতে পারবেন তো!”’

ছবির নাম আপাতত ভাবা হয়েছে ‘প্ল্যাটফর্ম সিংগার রানু মণ্ডল’। রানু মণ্ডলের এই বায়োপিকে কী কী থাকবে? হৃষিকেশ মণ্ডল বলেছেন, ‘ছবি শুরু হবে সাংবাদিকদের সামনে রানু সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন, সেই দৃশ্য দিয়ে। রানু মণ্ডলের জীবনে একাধিক প্রেম রয়েছে, থাকবে সেই গল্প। আরও থাকবে তাঁর গায়িকা হয়ে ওঠার গল্প। পাশাপাশি তাঁর জীবনে রয়েছে নানা উত্থান-পতনের ঘটনা। তাঁর স্বামী, সন্তান—এই সবও থাকবে ছবিতে।’

default-image

ছবির শুটিং কোথায় হবে? হৃষিকেশ মণ্ডল জানালেন, রানাঘাটেই প্রায় পুরো ছবির শুটিং হবে। কিছু অংশের শুটিং হবে কলকাতা আর মুম্বাইয়ে।

রানু মণ্ডলের চরিত্রে কে অভিনয় করবেন? এরই মধ্যে সুদীপ্তা চক্রবর্তীর সঙ্গে আলোচনা করেছেন হৃষিকেশ মণ্ডল। সুদীপ্তা চক্রবর্তী মঞ্চ, ছোট পর্দা আর বড় পর্দায় অভিনয় করছেন। ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘বাড়িওয়ালি’ ছবিতে অভিনয় করে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ছবিতে রানু মণ্ডলের চরিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে তাঁর আগ্রহ রয়েছে। চিত্রনাট্য পাঠাতে বলেছেন। এর পর সিদ্ধান্ত জানা যাবে।

default-image

হৃষিকেশ মণ্ডল আরও জানালেন, রানাঘাট স্টেশনে রানু মণ্ডলের সেই গানের আলোচিত ভিডিওটি নিজের মুঠোফোনে ধারণের পর ফেসবুকে শেয়ার করেন অতীন্দ্র চক্রবর্তী। ছবিতে থাকবেন তিনিও। এ ছাড়া হিমেশ রেশমিয়াকেও রাখার পরিকল্পনা রয়েছে। বললেন, ‘হিমেশ রেশমিয়ার কাছে প্রস্তাব পাঠাব। যদি তিনি রাজি না হন, তাহলে সেই চরিত্রে অন্য কাউকে নেওয়া হবে।’

এদিকে রানু মণ্ডলকে নিয়ে হৃষিকেশ মণ্ডল ছবির জন্য যে কাহিনি ভেবেছেন, তা এরই মধ্যে সামনে চলে এসেছে। আর তা কাজটি নিয়ে উত্তেজনার বশে পরিচালক নিজেই বলে দিয়েছেন। অনেকেই মন্তব্য করেছেন, সাধারণত বায়োপিক তৈরি করা মোটেও সহজ ব্যাপার না। ছবিতে কী কী থাকবে, তা যদি দর্শক আগেই জেনে যান, তাহলে সেই ছবির ব্যাপারে কারও কোনো আগ্রহ থাকে না।

আগেই জানা গেছে, রানু মণ্ডলকে নিয়ে হৃষিকেশ মণ্ডল যে ছবি তৈরির পরিকল্পনা করেছেন, তাঁর পেছনে আছেন ক্যাকটাস ব্যান্ডের গায়ক সিদ্ধার্থ রায় সিধু। ছবির গানের সংগীত পরিচালনা করবেন তিনি। ছবিতে একাধিক গান গাইবেন রানু মণ্ডল নিজেই।

রানু মণ্ডলের গান নিয়ে সিধু বলেছেন, ‘আমি তাঁর গান শুনেছি। বেশ ভালো গাইছেন। তার চেয়েও বড় কথা হিমেশ রেশমিয়া তাঁকে একটা সুযোগ দিয়েছেন। ফলে এটা আশা করা যেতেই পারে, আগামী ছয় মাস অন্তত এই ক্রেজটা থাকবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন