সম্মানের টানে ছুটে এলেন সবাই

বিজ্ঞাপন
default-image

নতুন সিনেমার কাজে জয়া ছিলেন দেশের বাইরে। আজ সকালের ফ্লাইটে আবার ছুটবেন কলকাতায়। অংশ নেবেন নতুন ছবির শুটিংয়ে। শাকিব খান বীর ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন পুবাইলে। এদিকে নো ল্যান্ডস ম্যান ছবির কাজে তিশার থাকার কথা ছিল যুক্তরাষ্ট্রে। পুরস্কার নিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে উড়ে এসেছেন সংগীত পরিচালক ইমন সাহা। শুধু প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সম্মাননা গ্রহণ করবেন বলে গতকাল সবারই গন্তব্য এসে মিলেছিল ঢাকার আগারগাঁওয়ে। এদিন বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেম মিলনায়তনে বসেছিল চলচ্চিত্রের গত দুই বছরের শ্রেষ্ঠ ব্যক্তিদের হাতে পুরস্কার প্রদানের আসর। সশরীর উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার নিতে তারকাদের সবাই ছিলেন উচ্ছ্বসিত।

default-image

এদিকে দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বরেণ্য অভিনয়শিল্পী এ টি এম শামসুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে। দেশের চলচ্চিত্র ও নাটকের গুণী এই অভিনয়শিল্পীকে ২০১৭ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। একই বছরে যুগ্মভাবে সম্মানিত হন সুজাতা। পরের বছরও যুগ্মভাবে চলচ্চিত্রের দুজন শিল্পী প্রবীর মিত্র ও আলমগীরকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়।

default-image

দুই বছরের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান উপলক্ষে গতকাল বসেছিল তারার মেলা। চলচ্চিত্রের নানান শাখায় যেসব শিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক ও কলাকুশলী কাজ করেন, তাঁরা এক ছাদের নিচে একত্র হয়েছিলেন। অনেক দিন পর সবার সঙ্গে দেখা হওয়াতে কেউ সেলফি তুলে মুহূর্তটা স্মরণীয় করে রাখতে চেয়েছেন। কেউবা চুটিয়ে আড্ডা দিয়েছেন।

default-image

পুরস্কারপ্রাপ্ত তারকা, পরিচালক, প্রযোজক ও কলাকুশলীরা বসেছিলেন মঞ্চের ঠিক বাঁ পাশে। মুখভর্তি দাড়ি নিয়ে মিলনায়তনে দেখা গেল দেশের সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানকে। শাকিব জানালেন, বীর ছবির জন্য তাঁর এই বেশভূষা। শুটিং স্পট থেকে সরাসরি অনুষ্ঠানস্থলে এসেছেন শুধু প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে সম্মাননা গ্রহণ করবেন বলে।

default-image

জয়া আহসানও তাই। আজ সোমবার সকাল থেকে তিনি কলকাতায় অর্ধাঙ্গিনী সিনেমার শুটিং শুরু করবেন। তিনি বলেন, ‘সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে নিজের প্রযোজিত ও অভিনীত দেবী সিনেমার জন্য পুরস্কার পাওয়ায়। প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার নেব বলেই শুটিং রেখে ছুটে এসেছি।’

default-image

এ টি এম শামসুজ্জামানের শারীরিক অবস্থা এমনই ছিল যে তিনি আদৌ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে থাকতে পারবেন কি না, তা নিয়ে দেখা দিয়েছিল সংশয়। এই অভিনয়শিল্পী বলেন, ‘শুধু প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার নেব, তাই হাসপাতাল থেকে ছুটি নিয়েছি। আমি অনেক খুশি, আজীবন সম্মাননা পেয়ে, প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে তা নিতে এসে।’

default-image

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্রের জন্য কিছু সুখবরও দেওয়া হয়। তথ্যমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে জানান, অনুদানের চলচ্চিত্রে এত দিন যে পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ হতো, এখন থেকে তা দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে। অনুদানের ছবির জন্য প্রযোজকেরা পাবেন এক কোটি টাকা।

default-image

চারটায় শুরু হওয়া অনুষ্ঠান শেষ হয় পৌনে সাতটায়। শুরুতে ছিল পুরস্কার প্রদান। প্রধানমন্ত্রী একে একে সবার হাতে ট্রফি তুলে দেন ও সোনার মেডেল পরিয়ে দেন। পুরস্কার প্রদান শেষে ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক আয়োজন উপস্থাপনা করেন ফেরদৌস ও পূর্ণিমা।

default-image
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন