সারাকে জিজ্ঞাসাবাদ, মেয়েকে নিয়ে চিন্তিত সাইফ

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের অপমৃত্যুর সঙ্গে মাদকের গভীর যোগসূত্র আছে বলে সিবিআইয়ের তদন্তে উঠে এসেছে। এই মামলার তদন্তে সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর (এনসিবি) কাছে জানান যে ২০১৬ সালে সুশান্ত ‘কেদারনাথ’ ছবির সেট থেকে মাদক নিতে শুরু করেন। ছবিটিতে সুশান্তের সঙ্গী ছিলেন একই সিনেমার নায়িকা সারা আলী খান। রিয়া জানিয়েছেন, এই ছবির অনেক সহশিল্পী শুটিংয়ের সময় মাদক নিতেন।

ব্যস, আগুন যেন ছড়িয়ে পড়ল। সরাসরি মাদক কেলেঙ্কারিতে উঠে এল সাইফ আলী খানের কন্যা সারা আলী খানের নাম। যে কারণে আজ মুম্বাইয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর তদন্ত কমিটির জেরার মুখে পড়তে হয়েছে পতৌদি পরিবারের মেয়েকে। আজ শনিবার বেলা ১১টায় পৌঁছানোর কথা ছিল সারার। কিন্তু বেলা একটায় মুম্বাইয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর ব্যালাড এস্টেটের অফিসে হাজির হন তিনি। সারার পরনে ছিল গোলাপি সালোয়ার ও সাদা পালাজো, মুখে মাস্ক।

default-image

এমন পরিস্থিতিতে মেয়েকে নিয়ে চিন্তিত বাবা সাইফ আলী খান। জানা গেছে, সারাকে নিয়ে আলাদা করে আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করছেন সাইফ আলী খানও। ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মেয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর অফিসে যাওয়ার আগে আইনি পরামর্শও নিয়েছেন সাইফ আলী খান। মেয়েকে সেভাবে প্রস্তুত করে পাঠিয়েছেন তদন্ত কমিটির কাছে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরে একটি সাক্ষাৎকারে সাইফ আলী খান বলেছিলেন, সুশান্তের মৃত্যুর খবর শোনার পর থেকেই শোকস্তব্ধ হয়ে গেছেন সারা। তিনি বলেন, ‘সারা সুশান্তকে বেশ পছন্দ করত, তাঁর ব্যক্তিত্বের বিভিন্ন দিক নিয়ে খুব গল্প করত। আমাকে একদিন জানিয়েছিল, সুশান্ত খুব মেধাবী। দর্শন আর প্রকৌশলের বিভিন্ন দিক নিয়ে নাড়াচাড়া করতে ভালোবাসেন। সব মিলিয়ে বেশ ভালো মানের অভিনেতা ছিলেন সুশান্ত।’

default-image

‘কেদারনাথ’ সিনেমায় সুশান্ত সিং রাজপুতের বিপরীতে ছিলেন সারা আলী খান। শুটিংয়ের সময় সারা ও সুশান্তের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক শুরু হয় বলে জানা গেছে। গত মাসে সারা ও সুশান্তের প্রেমের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে কথা বলেছেন সুশান্তের সাবেক ব্যবস্থাপক সাবির আহমেদ। সাবির জানিয়েছেন, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে সুশান্তের সঙ্গে ব্যাংককে ছিলেন সারা। টানা তিন দিন হোটেলের রুম থেকে বের হননি দুজনের কেউ।

বিজ্ঞাপন

সুশান্ত সিং রাজপুতের আরেক বন্ধু স্যামুয়েলও সারা-সুশান্তের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলেছেন। সুশান্তের প্রেম নিয়ে কথা বলেছেন। স্যামুয়েল তাঁর ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘কেদারনাথ’-এর প্রচারের সময় সারা আর সুশান্ত যেন প্রেমের সাগরে ভাসছিলেন। দুজন একে অপরকে শ্রদ্ধা করতেন, ভালোবাসতেন। তাঁদের সম্পর্কটা খুব সুন্দর ছিল, নিরেট প্রেম।

অবশ্য সারা আর সুশান্তের ব্যাংককে ভ্রমণের প্রসঙ্গটি প্রথমে এসেছিল অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর সাক্ষাৎকারে। সুশান্তের ফার্ম হাউসেও নাকি সারার নিয়মিত আনাগোনা ছিল। তবে আচমকাই তাঁদের সম্পর্কে ছেদ পড়ে।

default-image
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0