default-image

সত্তা ছবির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় শুরু করেছিলেন বন্যা মির্জা। তিন দিন শুটিং করার পর হঠাৎ মঞ্চনাটকে ফেরার তাগিদ অনুভব করায় সত্তা ছবি থেকে সরে দাঁড়াতে হয়েছে তাঁকে। এ জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি। এখন ছবিটিতে তাঁর পরিবর্তে অভিনয় করছেন শামীমা নাজনীন। বর্তমানে ঢাকার অদূরে পূবাইলে ছবিটির শুটিং করছেন শামীমা।
এ প্রসঙ্গে বন্যা বলেন, ‘তিন মাস আগে ছবিটির শুটিং শুরু করেছিলাম। কিন্তু পরে ছবির শুটিং শিডিউল মেলানোটা আমার জন্য খুব কষ্টকর হয়ে পড়ে। অনেক দিন থেকেই মঞ্চে ফেরার তাগিদ অনুভব করছিলাম। মঞ্চের জন্য তো টানা মহড়া করতে হয়। মহড়ার পেছনে অনেক সময়ের দরকার হয়। এসব কারণে ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও আমি ছবিটির কাজ করতে পারিনি।’ 
বন্যা আরও বলেন, ‘ছবির গল্প, পরিচালকসহ পুরো ইউনিটকে আমার খুব চমৎকার লেগেছে। আমার কারণে তাঁরা কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এ জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। মনে হচ্ছে, একটি ভালো কাজ থেকে বঞ্চিত হলাম। সত্তা ছবি ও এর পুরো দলের জন্য আমার শুভকামনা থাকল।’
সত্তা ছবিতে কলকাতার অভিনেত্রী পাওলি দামের মায়ের চরিত্রে অভিনয় শুরু করেছিলেন বন্যা মির্জা। এখন সেই চরিত্রটি করছেন শামীমা নাজনীন। এ প্রসঙ্গে বন্যা বলেন, ‘পরিচালক একজন যোগ্য অভিনয়শিল্পীকে চরিত্রটির জন্য নির্বাচিত করেছেন। নিঃসন্দেহে শামীমা নাজনীন আপা অনেক ভালো একজন অভিনয়শিল্পী। তাঁর সঙ্গে ছবিটি নিয়ে আমার কথা হয়েছে। আমার বিশ্বাস, তিনি চরিত্রটির সঙ্গে চমৎকারভাবে মানিয়ে যাবেন।’ 

সোহানী হোসেনের ‘মা’ গল্প অবলম্বনে নির্মিতসত্তা ছবির পরিচালক হাসিবুর রেজা কল্লোল। তিনি বললেন, ‘হঠাৎ করে বন্যা মির্জা সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলে সাময়িকভাবে কিছুটা অসুবিধার মুখে পড়তে হয়। তবে তা কাটিয়ে উঠেছি।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0