এই মুহূর্তে অক্ষয় কুমার বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক গোনা অভিনেতা। ফোর্বসের সর্বশেষ জরিপে, পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ১০০ তারকার মধ্যে একমাত্র ভারতীয় হিসেবে নাম এসেছে অক্ষয় কুমারের। বছরে তিনি ৭০০ কোটি টাকা আয় করেন। সম্প্রতি তিনি তাঁর পারিশ্রমিক বাড়িয়েছেন আরও এক দফায়। ১০০ কোটি রুপি থেকে এবার তাঁর পারিশ্রমিক গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৫ কোটি রুপিতে। হ্যাঁ, আপনি যদি কোনো সিনেমা বানান, আর সেখানে অক্ষয় কুমারকে হিরো হিসেবে চান, তাহলে আপনার পকেট থেকে চলে যাবে বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৫৫ কোটি টাকার বেশি।

default-image

অক্ষয় কুমার মাত্রই দুটো ছবির শুটিং শেষ করেছেন। ‘সূর্যবংশী’ আর ‘বেল বটম’। এই মুহূর্তে আরও দুটো ছবির শুটিং করছেন ‘আতরঙ্গি রে’ আর ‘পৃথ্বিরাজ’। পাইপলাইনে রয়েছে ‘রক্ষা বন্ধন’ আর ‘রাম সেতু’ নামের আরও দুটো ছবি। সবচেয়ে কম সময়ে সিনেমার শুটিং শেষ করার জন্যও নামডাক আছে তাঁর।

default-image
বিজ্ঞাপন

দীর্ঘদিন কাজ বন্ধ থাকার পর বেশ কয়েকটি সিনেমা একসঙ্গে শুরু করায় নিজের পারিশ্রমিকের অঙ্ক আরও বড় করলেন অক্ষয়। সব মিলিয়ে অক্ষয়ের ছবির বাজেট ২০০ থেকে ২৫০ কোটি টাকা। শুধু তা-ই নয়, ছবির লভ্যাংশে প্রযোজকের সঙ্গেও ভাগ বসাবেন তিনি। তবুও প্রযোজকেরা অক্ষয়কেই চান। কেননা, অক্ষয় মানেই সিনেমা হিট। তাই তো অক্ষয়ের আরেক নাম ‘হিট মেশিন’।

default-image

১৯৯১ সালে অ্যাকশন হিরো হিসেবে নিজের যাত্রা শুরু করেছিলেন তিনি। অবশ্য ২০০০ সালে প্রায় নিজের ট্র্যাক বদলে অ্যাকশন হিরো থেকে কমেডি হিরো হিসেবে নিজেকে মেলে ধরেন৷ প্রথম হিটের মুখ দেখার জন্য পরপর ১৬টা ফ্লপ ছবি ‘উপহার’ দিতে হয়েছিল যাঁর, সেই মানুষটার এখন সময় বদলেছে। এখন তিনি পরপর ১৬টি ব্লকবাস্টার হিট উপহার দিলেও কেউ অবাক হবে না। ১৯৬৭ সালের ৯ সেপ্টেম্বর পাঞ্জাবের অমৃতসরে জন্ম নেন তিনি। তায়কোয়ান্দোতে ব্ল্যাক বেল্ট পাওয়ার পর তিনি মার্শাল আর্ট শেখার জন্য উড়াল দেন ব্যাংকক। উদ্দেশ্য, সেখানকার বিশেষ ধরনের আত্মরক্ষার কৌশল ‘মুই থাই’ শেখা। তারপর টাকার জন্য অনেক জায়গায় রেস্টুরেন্টের ওয়েটার হিসেবে কাজ করেন। একই কাজ করেছেন বাংলাদেশের ঢাকায়ও।

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন