default-image

২০১১ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেটের কথা হয়তো অনেকেরই মনে থাকবে। খেলার জগৎ থেকে সেবার উত্তেজনা পৌঁছে গিয়েছিল বিনোদন জগতে। বিশেষ করে বলিউডের বিতর্কিত অভিনয়শিল্পী পুনম পান্ডের এক ঘোষণায় শুরু হয়েছিল তোলপাড়। ভারত বিশ্বকাপ জিতলে প্রকাশ্যে নগ্ন হওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

default-image

তবে ঘোষণাতেই শেষ। ধোনিরা বিশ্বকাপ জিতলেও প্রকাশ্যে নগ্ন হননি পুনম। পরের বছর আইপিএলের পঞ্চম মৌসুমে কলকাতা নাইট রাইডার্স চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর অবশ্য তিনি বিবস্ত্র হয়েছিলেন। এবার আর বিবস্ত্র নয়, অর্ধনগ্ন হয়ে ভিডিও ধারণ করার জেরে প্রতিদিন থানায় হাজিরা দিতে হচ্ছে তাঁকে।

বিজ্ঞাপন

বিতর্কিত মন্তব্য আর উল্টোপাল্টা কাণ্ড ঘটিয়ে বারবার সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ‘নেশা’ তারকা পুনম পান্ডেকে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খোলামেলা ছবি ও ভিডিও পোস্ট করে প্রায়ই বিতর্কের ঝড় তোলেন ২৯ বছর বয়সী এই মডেল ও অভিনেত্রী।

default-image

গত সপ্তাহে লকডাউনের ভেতর ‘অর্ধনগ্ন’ হয়ে সংরক্ষিত এলাকার সৈকতে ভিডিও ধারণ করছিলেন তিনি। এ সময় পুলিশের হাতে আটক হয়েছিলেন পুনম। গোয়া ফরোয়ার্ড পার্টির নারী শাখার পক্ষে রাজ্যের সমুদ্রসৈকত এলাকা ও সংরক্ষিত বাঁধে অশালীন অবস্থায় ভিডিও ধারণের জন্য ক্যানাকোনা পুলিশ পুনম পান্ডের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করে। তার আগের বৃহস্পতিবার এই অভিনেত্রীকে আটক করে গোয়া পুলিশ। পরে মুচলেকা দিয়ে জামিন পান তিনি। জানা গেছে, আপাতত আদালতের অনুমতি ছাড়া গোয়া ছাড়তে পারবেন না পুনম। প্রতিদিন তাঁকে হাজিরা দিতে হচ্ছে স্থানীয় থানায়।

১৯৯১ সালের ১১ মার্চ পুনমের জন্ম কানপুরে। মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেন তিনি। ভারতের একটি জনপ্রিয় পত্রিকার আয়োজন করা ফ্যাশন শোর সেরা ৯ জন প্রতিযোগীর মধ্যে তিনি নির্বাচিত হন। তারপর প্রচার পেতে সময় লাগেনি তাঁর। ২০১৩ সালে ‘নেশা’ ছবিতে অভিনয় করেন পুনম। সেখানে অনিতা শর্মা নামের এক শিক্ষিকার ভূমিকায় ছিলেন তিনি। এক ছাত্রের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক নিয়েই ছবির কাহিনি। ‘নেশা’ ছবির পোস্টার ঘিরে জমে উঠেছিল তীব্র বিতর্ক। পোস্টারে পুনমের শরীর ঢাকা ছিল দুটি প্ল্যাকার্ড দিয়ে।

default-image

ক্যারিয়ারে হিন্দির পাশাপাশি কন্নড়, ভোজপুরি ও তেলেগু ছবিতেও অভিনয় করেছেন পুনম। ‘লাভ ইজ পয়জন’, ‘মালিনী অ্যান্ড কো’, ‘আ গ্যায়া হিরো’, ‘দ্য জার্নি অব কর্ম’সহ বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছেন পুনম। তবে শুরু থেকেই পুনম আলোচিত ছিলেন যৌন আবেদনময়ী তারকা হিসেবে। অন্য কোনো চরিত্রের জন্য তাঁর কথা কেউ কোনো দিন ভেবেছে বলে জানা যায়নি। বছর তিনেক আগে ‘দ্য পুনম পান্ডে অ্যাপ’ নামে নিজস্ব অ্যাপ চালু করেছিলেন পুনম। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যে সেই অ্যাপ নিষিদ্ধ করে গুগল। অভিযোগ ছিল, তাতে আপত্তিকর বিষয় আছে। গুগলকেও নিষিদ্ধ করতে হয়েছে, এমন কী ছিল তাতে? গুগল প্লেস্টোর নিষিদ্ধ করলেও নিজের প্রোফাইলে অ্যাপটি রেখেছিলেন পুনম। তাঁর দাবি, চালু করার মাত্র ১৫ মিনিটে ১৫ হাজারবার ডাউনলোড করা হয়েছিল অ্যাপটি।

অনেকেই তাঁকে ‘বিতর্কের রানি’ নামে ডাকেন। পুনমও হয়তো বিতর্কিত হয়ে খবর হতে ভালোবাসেন। একবার গভীর রাতে মুম্বাইয়ের মিরা রোডে গাড়ির ভেতর ছেলেবন্ধুর সঙ্গে অশালীন অবস্থায় দেখা যায় তাঁকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুনমকে গ্রেপ্তার করতে বাধ্য হয় পুলিশ। পরে অবশ্য সতর্ক করে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। চলতি বছর স্বামী রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনেন পুনম। তাঁর অভিযোগ, চুক্তির মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ার পরও অবৈধভাবে তাঁর অ্যাপের কনটেন্ট ব্যবহার করছিল রাজ কুন্দ্রার প্রতিষ্ঠান। ব্যবসায়ী রাজ ও তাঁর সংস্থার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন পুনম। তাদের বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে রাজ কুন্দ্রার সংস্থা।

বিজ্ঞাপন
default-image

দুই বছর একসঙ্গে থাকার পর চলতি বছরের পয়লা সেপ্টেম্বর আলোকচিত্রী স্যাম বম্বেকে বিয়ে করেন পুনম। কিন্তু গোয়ায় মধুচন্দ্রিমায় গিয়েই ঝামেলা পাকান তিনি। হুট করে একদিন দক্ষিণ গোয়ার ক্যানাকোনা থানায় স্বামী স্যাম বম্বের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ দেন পুনম। তাঁর অভিযোগের জেরে স্যামকে গ্রেপ্তারও করে পুলিশ। এর এক সপ্তাহ পরই রাতারাতি বদলে যান পুনম। সব অভিযোগ ভুলে তিনি স্যামের পাশে দাঁড়ান। দুজনই জানান, তাঁরা ভুল–বোঝাবুঝি মিটিয়ে নিয়েছেন। সেখানেই ঝামেলা শেষ হয়নি। দুজন মিলেই আবার ঝামেলা বাঁধিয়েছিলেন। যেমন গত সপ্তাহে পুনম ও স্যাম দুজনই গোয়া পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, দক্ষিণ গোয়ার ক্যানাকোনায় চাপোলি বাঁধের ওপরে তাঁরা অশ্লীল ভিডিও ধারণ করছিলেন। গোয়ার কালাঙ্গুটে এলাকার একটি পাঁচ তারকা হোটেল ছেড়ে বের হওয়ার সময় গ্রেপ্তার করা হয় পুনম ও স্যামকে।

মন্তব্য পড়ুন 0