অভিনেতা ভাস্কর চট্টোপাধ্যায় ফেসবুকে সরাসরি রুদ্রনীলের উদ্দেশে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন।
অভিনেতা ভাস্কর চট্টোপাধ্যায় ফেসবুকে সরাসরি রুদ্রনীলের উদ্দেশে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন।

দিনকাল মোটেও ভালো যাচ্ছে না অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষের। বেচারা আত্মবিশ্বাসী ছিলেন এবারের বিধানসভার নির্বাচনে জিতবেনই। কিন্তু ভোট গণনা শেষ হতেই ফলাফল বলে দিল, ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে পরাজিত হয়েছেন বিজেপির এই তারকা প্রার্থী। তৃণমূলের বর্ষীয়ান প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের কাছে ২৮ হাজার ৫০৭ ভোটের ব্যবধানে তিনি পরাজিত হয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এর মধ্যে আজ সহশিল্পী অভিনেতা ভাস্কর চট্টোপাধ্যায় ফেসবুকে সরাসরি তাঁর উদ্দেশে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন। রুদ্রনীলকে সরাসরি বললেন, ধান্দাবাজ!

default-image

সোমবার দুপুরে ফেসবুক পোস্ট শুরু করেছেন ‘রুদ্রনীল তোর জন্য’ বাক্য দিয়ে। এরপর লিখেছেন, ‘২০০৭ সালে তুই সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়ে বলেছিলি, আমি মিচকে শয়তান। হতে পারে তোর চোখে আমি তা–ই, কিন্তু আমি এত দিন একটা কথাও মিডিয়াতে তোর বিরুদ্ধে বলিনি। আমি আজ বলি, আমি আর যা–ই হই, আমি তোর মতো ধান্দাবাজ নই।

বিজ্ঞাপন

‘তুই তো বড় মাপের অভিনেতা, কিন্তু জানিস তো অভিনেতা হোস বা নেতা, আগে ভালো মানুষ হতে হয়। না হলে লোকের মনোরঞ্জন বা মানুষের জন্য কাজ করবি কী করে? তুই হেরে গিয়ে একদিকে তোর জন্য মঙ্গল হয়েছে, আত্মোপলব্ধি কর। ভালো মানুষ হয়ে ওঠ...দেখবি নিজেকেই নিজের ভালো লাগবে। তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠ প্রিয়।’

default-image

জানা গেছে, ১৪ বছর আগে দেবাংশু সেনগুপ্তের পরিচালনায় একটি টেলিফিল্মে রুদ্রনীলের সঙ্গে কাজ করেছিলেন ওই অভিনেতা। ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভাস্করের কটাক্ষ, ‘আমার সঙ্গে মাত্র একটি কাজ করেই রুদ্রনীল বুঝে গিয়েছিলেন, আমি মিচকে শয়তান। সে কথা তিনি সংবাদমাধ্যমে ঢেঁড়া পিটিয়ে জানিয়েছেন।’ সেই সময় তিনি বিষয়টি নিয়ে নাড়াচাড়া করেননি। এবার বিজেপি প্রার্থী হিসেবে রুদ্রনীলের পরাজয়ের পরই মুখ খোলেন ভাস্কর।


আগের দিন ভোটে হেরে রুদ্রনীল ফেসবুকে একটি পোস্টে জয়ী দল তৃণমূল কংগ্রেসকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘একুশের ভোটযুদ্ধ শেষ। মানুষের রায়ে আশাতীত সাফল্যে প্রথম স্থানে তৃণমূল এবং দ্বিতীয় স্থানে বিজেপি। সিপিএম ও কংগ্রেস শূন্য। জয়ী প্রার্থীদের অভিনন্দন। যাঁরা জয়ী হলেন না, তাঁদের পরিশ্রমকে কুর্নিশ। সব রাজনৈতিক দলের ভোটার, সমর্থক ও কর্মীদের ভালোবাসা জানাই। নির্বাচনে হারজিত থাকেই...।’ রুদ্রনীলেরই আরও দুই ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবার তৃণমূলের হয়ে লড়েছেন এবং জয়ী হয়েছেন। তাঁদের সম্পর্কেও অভিনেতা বলছেন, ‘সদ্য রাজনীতিতে পা দিয়েই জয়ী হয়েছেন ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাজ চক্রবর্তী ও কাঞ্চন মল্লিক। দুজনকেই শুভেচ্ছা।’

default-image

আগে তৃণমূলের সঙ্গেই ছিলেন রুদ্রনীল। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কারণ হিসেবে রুদ্রনীল বলেছিলেন, তিনি দলে থেকে কাজ করতে পারছেন না। সেই প্রসঙ্গ টেনেই তিনি লিখেছেন, ‘আশা করব, প্রথা পাল্টে তৃণমূল এদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেবে এবার। এই নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হেরে গেছেন শুভেন্দু অধিকারীর কাছে। যে কেউ হারুন বা জিতুন, নতুন সরকারে যেন ফের দুর্নীতি না জেতে, সেটাই কাম্য।’

default-image
বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন