default-image

পর্দার ‘বাহুবলী’র বড় হৃদয়ের পরিচয় মেলে বারবার। করোনা মোকাবিলায় এর আগে ইতিমধ্যে পাঁচ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রভাস। এর মধ্যে সাড়ে তিন কোটি টাকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর করোনা তহবিলে। ৭৫ লাখ করে টাকা দিয়েছেন অন্ধ্র প্রদেশ এবং তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর করোনা ফান্ডে। এ বেলা তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর তহবিলে আরও ১ কোটি ৭২ লাখ টাকা দিলেন প্রভাস। সব মিলিয়ে করোনা তহবিলে শুধু সরকারি ফান্ডেই প্রভাস প্রায় ৭ কোটি টাকা দিয়েছেন।
মহামারিতে ভেঙে পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতি। করোনা মোকাবিলায় ভারতের অর্থনীতি ঢেলে সাজাতে প্রধানমন্ত্রী ও রাজ্য সরকার দেশের সামর্থ্যবান লোকজনকে সাহায্য করতে বলেন। তারই অংশ হিসেবে দ্বিতীয় দফায় সরকারি তহবিলে অর্থ দিলেন দক্ষিণ ভারতীয় সুপারস্টার প্রভাস।

default-image

প্রভাস কেবল দক্ষিণ ভারতেরই নয়, ভারতের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক গোনা তারকাদের মধ্যে অন্যতম। লকডাউনের পর প্রভাস অভিনীত ‘আদিপুরুষ’ সবচেয়ে বড় বাজেটের ভারতীয় ছবি হতে চলেছে।

বিজ্ঞাপন

এই ছবির বাজেট এখন পর্যন্ত ৪০০ কোটি রুপি রাখা হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, এই বাজেটের ১০০ কোটি রুপি বা ১১৫ কোটি টাকা প্রভাসের পারিশ্রমিক! আর এই পারিশ্রমিক গুনে রেকর্ড বইয়ে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

default-image

অবশ্য যাঁর এক সিনেমার পারিশ্রমিক ১১৫ কোটি টাকা, তার জন্য ১ কোটি ৭২ লাখ টাকা এমন বড় সংখ্যা নয়।
এই ছবির সম্মানী বাবদ ৭০ কোটি এবং ডাবিংয়ের জন্য ৩০ কোটি, মোট ১০০ কোটি রুপি নেবেন এই অভিনেতা। আর এতেই রেকর্ড বইয়ে শীর্ষ স্থানে চলে গেলেন প্রভাস। কারণ এর আগে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক হিসেবে ৭০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন রজনীকান্ত।
প্রভাসের ছবি মানেই আকাশছোঁয়া বাজেট। ‘বাহুবলী’র পর প্রভাসের ‘সাহো’ ছবির বাজেট ছিল ৩৫০ কোটি রুপি।

এর আগে প্রভাসের ‘বাহুবলী’ উল্টেপাল্টে দিয়েছিল ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসকে। সর্বকালে সর্বোচ্চ আয় করা ভারতীয় ছবি এটি।

default-image

তবে এই সাফল্য আজও তাঁকে বিস্মিত করে। তবে তারকাখ্যাতিতে একদমই বিশ্বাসী নন দক্ষিণী নায়ক প্রভাস। এ নিয়ে মাথাব্যথাও নেই। প্রভাস বলেন, ‘আমি নিজেকে আজও সুপারস্টার বলে মনে করি না। আমি একজন ভালো অভিনেতা হিসেবে সবার মনে বেঁচে থাকতে চাই।’ এত বড় তারকা হয়েও মাটিতে পা রেখে চলা কতটা মুশকিলের? তার জবাবে এই তারকা বলেন, ‘আমার মনে হয় আমার বন্ধুদের জন্যই আমি মাটির এত কাছাকাছি থাকি। ওরা আমার খ্যাতিকে কখনো আমার মাথায় উঠতে দেয়নি। আমি অতটা সামাজিক নই। যা শিখেছি বন্ধুদের কাছ থেকেই শেখা।’

default-image
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0