বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

জানা গেছে, আদালতে এ মামলার শুনানির সময় শাহরুখের ব্যবস্থাপক পূজা দদলানি অঝোরে কেঁদেছেন। এর আগে এনসিবির দপ্তরে আরিয়ানের সঙ্গে দেখা করতে পূজা গিয়েছিলেন। আর তাঁর হাতে সেই সময় বার্গারের প্যাকেট ছিল বলে শোনা গেছে।
আজ বেলা ১১টা নাগাদ ম্যাজিস্ট্রেট আরিয়ানের জামিনের ওপর রায় শোনাবেন। ২ অক্টোবর রাতে প্রমোদতরিতে কী হয়েছিল, সে সম্পর্কে জানিয়েছেন আরিয়ান। আদালতে প্রশ্নোত্তর পর্বের সময় আরিয়ানের পক্ষ থেকে তাঁর আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডে জানান, ‘আমি (আরিয়ান) ক্রুজ টার্মিনালে গিয়েছিলাম। ওখানে আরবাজ আমার জন্য অপেক্ষা করছিল। আমি ওকে ভালোভাবে চিনি। আমরা একসঙ্গে প্রমোদতরির উদ্দেশ্যে রওনা দিই। আমরা ওখানে পৌঁছানো মাত্র আমাকে ওনারা (এনসিবির কর্মকর্তারা) জিজ্ঞাসা করেন যে আমার সঙ্গে মাদক আছে কি না? ওনারা আমার ব্যাগে তল্লাশি করেন। আমারও তল্লাশি নেওয়া হয়। কিন্তু ওনারা কিছু পাননি। এরপর আমার ফোন ওনারা নিয়ে নেন। আর আমাকে এনসিবির দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত দুটো নাগাদ আমি আমার আইনজীবীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি পাই।’

default-image

এনসিবি আদালতের কাছে আরিয়ানসহ বাকি অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ১১ অক্টোবর পর্যন্ত রিমান্ড চেয়েছিল। মামলার শুনানির সময় আদালতের কাছে এনসিবি দাবী করেছে যে আরিয়ানের ফোনে পিকচার্স চ্যাট হিসেবে কিছু লিংক পাওয়া গেছে, যা আন্তর্জাতিক মাদক ট্রাফিকিংয়ের দিকে ইশারা করছে। আর শাহরুখপুত্রের মুঠোফোন চ্যাট থেকে কিছু কোডনেম পাওয়া গেছে, যা উদ্ধারের জন্য আরিয়ানের রিমান্ড বাড়ানোর কথা এনসিবি আদালতকে জানিয়েছে। এখন দেখার অপেক্ষা আজ আরিয়ান অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পান কি না।
আজ গৌরী খানের জন্মদিন। ভক্তরা বলছেন, এ বিশেষ দিনে একজন মায়ের জন্য এর (সন্তানের মুক্তি) থেকে সেরা উপহার আর কিছু হতে পারে না।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন