বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ঐশ্বরিয়ার জায়গায় যদি প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার নাম বলা হয়, বিশ্বাস হবে? কিন্তু সত্য এই। এমনকি চরিত্রটির জন্য প্রস্তুতি নেওয়াও শুরু করেছিলেন তিনি।
জেপি নিজেও প্রিয়াঙ্কাকেই চেয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমি প্রিয়াঙ্কার সঙ্গেই কাজ করতে চেয়েছিলাম। তাঁকেই আমি উমরাওজান হিসেবে দেখেছিলাম।’
তাহলে কী এমন হলো যে তাঁর জায়গায় ঐশ্বরিয়া হাজির হলেন!

default-image

আসলে প্রিয়াঙ্কা নিজেই না করে দিয়েছিলেন। কেন সরে গিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা? নিজেই পরে ভারতীয় গণমাধ্যমে এক সাক্ষাৎকারে কারণ জানান তিনি, ‘চরিত্রটিতে অভিনয়ের জন্য আমি দারুণ সব পরিকল্পনা করেছিলাম। কিন্তু জেপি সাহেব ৯০ দিন চেয়েছিলেন, এত দিন আমি তাঁকে দিতে পারতাম না।’
জেপি এবার নজর দিলেন ঐশ্বরিয়ার দিকে। গায়ত্রী দেবীর জীবনীভিত্তিক একটি ছবির জন্য নিজেকে তখন তৈরি করছিলেন ঐশ্বরিয়া। লন্ডনে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করলেন জেপি। ঐশ্বরিয়াকে জানালেন এই চরিত্রের কথা। অ্যাশ তখনো জানেন না যে চরিত্রটি প্রথম প্রিয়াঙ্কাকে প্রস্তাব করা হয়েছিল।

default-image

এর পরের ইতিহাস সবারই জানা। ছবিটি আশানুরূপ ব্যবসা করতে না পারলেও ঐশ্বরিয়ার সৌন্দর্য, রূপের ঝলকানি আর নাচ দর্শকের হৃদয়ে গেথে যায়। ছবিতে আরও ছিলেন অভিষেক বচ্চন, শাবানা আজমি, সুনীল শেঠি, দিব্য দত্ত প্রমুখ।
বলে রাখা দরকার, আজ ছবিটি মুক্তির ১৫ বছর পেরোলো।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন