default-image

মন্দই বলতে হবে বিরাট কোহলির কপালকে। এ বিশ্বকাপের মাঠে তাঁর হাতে ছক্কাই হোক কিংবা চার; অস্ট্রেলিয়ায় বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোতে ক্রিকেটার বিরাট কোহলির চোখ হয়তো খুঁজে বেড়াবে প্রিয়তমা আনুশকা শর্মাকে, কিন্তু সেখানে প্রিয়দর্শিনী আনুশকাকে দেখবেন না বিরাট।
অন্তত বিশ্বকাপের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত তো নিশ্চিত করেই বলা যায় যে আনুশকা সেখানে থাকতে পারছেন না। ছবির প্রচারণার কাজে এক মাস সময় দেবেন বলে কথা দেওয়ার কঠিন এক ফাঁদে আটকে গেছেন আনুশকা। আর এ কারণেই প্রাণ চাইলেও অস্ট্রেলিয়ার মাঠে-গ্যালারিতে বিরাটের মুখের হাসি হয়ে ফুটতে পারছেন না আনুশকা। এক খবরে জানিয়েছে মিড-ডে ডট কম।
ভারতের খেলা থাকলে ভিআইপি স্ট্যান্ড আলো করে আছেন আনুশকা—এ এক চিরাচরিত দৃশ্যই হয়ে গিয়েছিল। বিশেষ করে যখন বিরাট নামেন মাঠে। সে সময়টাতে স্ট্যান্ডে আনুশকা নেই! এটা ভাবাও যেত না। আর হতোও তাই। উচ্ছল আনুশকা বিরাটের খেলা দেখছেন, বল বিরাটের ব্যাটে লেগে ছক্কা হয়ে বাতাসে ভাসার সঙ্গে সঙ্গেই আনুশকা বাতাসে উড়িয়ে দিচ্ছেন চুম্বন। এসব হয়ে উঠেছিল নিত্যকার এক স্বাভাবিক বিষয়।
এদিকে আনুশকার খুব কাছের একটি সূত্র জানিয়েছে, ইদানীং যদিও অনেকেই বলছেন, বিরাটের মন্দ খেলার জন্য দায়ী আনুশকা; কিন্তু অধিকাংশ মানুষই বিরাটের জন্য আনুশকাকে বলছেন ‘লেডি লাক’।
যাই হোক না কেন, দিনশেষে এটা এখন প্রায় নিশ্চিতই হয়ে গেছে, চার-ছক্কা যা-ই মারুন না কেন বিরাট; বাতাসে ভাসিয়ে দেওয়া আনুশকার চুম্বনগুলোর জন্য বিরাটকে আরও বেশ কিছুদিন অপেক্ষাই করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন