বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে ছবিটা পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আরটি–পিসিআর টেস্ট ১১২ ইউরো। ভেনিস না–ফেরত অভিনেত্রীর তাই মাথায় হাত।’ করোনার কারণে বিদেশ ভ্রমণ করে দেশে ফিরতে দরকার হয় আরটি–পিসিআরের নেগেটিভ রিপোর্ট। এ রিপোর্ট থাকলেই নিজের দেশে ঢোকার অনুমতি পাবেন শ্রীলেখা। এই পরীক্ষা করাতেই ১১২ ইউরো খরচ হয়ে গেছে, ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ১০ হাজার রুপি। ফেরার পথে এতগুলো রুপি খরচ হয়ে যাওয়ায় ভেনিসের পথে বসে হাহুতাশ করছিলেন শ্রীলেখা।

default-image

গত মাসে পোষা প্রাণীর মৃত্যু ও রেড ভলান্টিয়ারসকে অপমান করায় ফেসবুকে বাম সমর্থকদের একহাত নিয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র। আগস্টের শেষ রোববার সুইজারল্যান্ড থেকে ফেসবুক লাইভে বাম সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আগামী দিনে সিপিএমকে ভোট দেব; কিন্তু তোমাদের কোনো কর্মসূচিতে আমি আর থাকব না। আগে নিজেরা ঠিক হও। তারপর দলকে ঠিক করবে। আমাকে কমরেড, লাল সালাম এসব বলবে না।’

default-image

কুকুর দত্তক নেওয়ার আহ্বান জানানোয় শ্রীলেখা মিত্রকে ‘কুকুর মৌলবাদী’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন বাম সমর্থকেরা। জবাবে শ্রীলেখা বলেন, ‘এসবে আমার কিছু যায় আসে না। পথের কুকুরগুলো আমার সন্তানের মতো। এগুলোর জন্য আমি জান দিতে পারি, আবার নিতেও পারি। ক্ষমতা থাকলে কুকুর দত্তক নেওয়ার আকুতি জানাতাম না। অন্য পশুপ্রেমী তারকারা মিলে পথের মালিকহীন কুকুরগুলোকে আশ্রয় দিতাম।’ আগামী দিনে পথের কুকুরগুলোকে নিজের ফ্ল্যাটে রাখার ব্যবস্থা করবেন বলে ঘোষণা দেন এই অভিনেত্রী।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন