ইন্টারনেট পুড়ছে কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু জ্বরে। ইউটিউব, টুইটার—সব জায়গায় ট্রেন্ডিংয়ে সবার ওপরে উঠে এসেছে এ ছবি নিয়ে আলোচনা। এ প্রতিবেদন যখন লেখা হচ্ছে, ততক্ষণে ইউটিউবে এ ছবির টিজার দেখা হয়েছে ১৪ কোটি ৪০ লাখ ৬০ হাজারবারের বেশি। ৭২ লাখ মানুষ লাইক দিয়েছেন ১০০ কোটি রুপি খরচ করে বানানো ছবির টিজারে। ৬ লাখ ৩৬ হাজার ভক্ত সেই টিজারের নিচে মন্তব্য করে জানিয়েছেন এ ছবি নিয়ে তাঁদের উচ্ছ্বাস। তাঁদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশি ভক্তরাও।

default-image

বাহুবলীর পর দক্ষিণ ভারতীয় ছবির মধ্যে অন্যতম আলোচিত নাম কেজিএফ। ২০১৮ সালের ২১ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছিল কেজিএফ: চ্যাপ্টার ওয়ান। ভারতের আড়াই হাজারের বেশি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল প্রশান্ত নীল পরিচালিত ছবিটি। কন্নড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি স্যান্ডালউডের ৮০ কোটি রুপি খরচ করে বানানো সিনেমাটি বলিউডকে তাক লাগিয়ে বক্স অফিসে ধুন্ধুমার ব্যবসা করে। তুলে এনেছিল ২৫০ কোটি রুপির বেশি। আর এই ছবির পরবর্তী পর্ব ‘চ্যাপ্টার টু’ মুক্তির আগেই মাত করেছে। ইউটিউবে সবচেয়ে কম সময়ে বেশিবার দেখার রেকর্ড গড়েছে এ ছবির টিজার।

default-image
বিজ্ঞাপন

কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু ছবির টিজার মুক্তি পায় ৭ জানুয়ারি। এটি ছিল সিনেমার ইউনিটের পক্ষ থেকে ছবির কেন্দ্রীয় অভিনেতা যশের জন্য জন্মদিনের উপহার। ৮ জানুয়ারি ছিল যশের ৩৫তম জন্মদিন। আর টিজারে লেখা দেখা যায়, ‘শুভ জন্মদিন আমাদের রকিং স্টার যশ।’ ইউটিউবে টিজারের নিচে কেজিএফ–ভক্তরা লিখেছেন, ‘সম্ভাব্য সেরা টিজার। হলিউডের কোনো ছবির টিজার থেকে এটি কোনো অংশে কম নয়। এ ছবি বিশ্বের যেকোনো ছবিকে টেক্কা দিতে প্রস্তুত।’ আরও লেখা হয়েছে, ‘কতবার যে দেখলাম! আপনি অন্তত পাঁচবার দেখুন।’ বাংলাদেশ থেকে একজন লিখেছেন, ‘যশ, আমরা তোমাকে ভালোবাসি। বাংলাদেশি কেজিএফ–ভক্তদের পক্ষ থেকে এ ছবির জন্য শুভকামনা। মুক্তির অপেক্ষায় থাকলাম।’

default-image

কেজিএফ ছবির পরিচালক প্রশান্ত নীল ছবির টিজার শেয়ার করে লিখেছেন, ‘আমি প্রতিজ্ঞা করেছিলাম প্রতিজ্ঞা রাখার জন্য।’ যশ ছাড়া এ ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন সঞ্জয় দত্ত, রাভিনা ট্যান্ডন, শ্রীনিধি শেঠিসহ অনেকে।

default-image
মন্তব্য করুন