বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এক শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকার খবর অনুযায়ী শিল্পা ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে দুটো রিপোর্ট করা হয়েছে। তাঁরা ‘ওয়েসিস স্লিমিং স্কিল সেলুন অ্যান্ড স্পা’ নামের এক প্রতিষ্ঠান খুলেছিলেন। এ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা লক্ষ্ণৌতে একটি শাখা খুলে দেবেন বলে সেখানকার কয়েকজন ব্যবসায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। শাখা খুলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁরা কোটি কোটি রুপি অগ্রিম নিয়েছিলেন। তবে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কাউকে ফ্র্যাঞ্চাইজি দেয়নি। তাঁদের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ করেছেন এক নারী। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শিল্পা ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে লক্ষ্ণৌর হজরতগঞ্জ আর বিভূতিখন্ড থানায় দুটো এফআইআর করা হয়। লক্ষ্ণৌ পুলিশ শিল্পার কাছে ইতিমধ্যে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়েছে।

default-image

লক্ষ্ণৌর পূর্ব অঞ্চলের পুলিশ কমিশনার সঞ্জীব সুমন জানিয়েছেন, শিল্পা আর তাঁর মা সুনন্দা শেঠিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আজ লক্ষ্ণৌ পুলিশ মুম্বাইয়ে যাবে। এই মামলার সবদিক থেকে তদন্ত করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। হাই প্রোফাইল মামলা হওয়ার জন্য পুলিশ পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করবে। প্রাথমিক তদন্তে শিল্পা ও সুনন্দা জড়িত প্রমাণিত হলে তাঁদের গ্রেপ্তার করাও হতে পারে।

১৯ জুলাই পর্নোগ্রাফি ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির ব্যবসায়ী স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেপ্তার করে ক্রাইম ব্রাঞ্চ। রাজের বর্তমান ঠিকানা আর্থার রোড জেল। ১০ আগস্ট, অর্থাৎ কাল এই পর্নোগ্রাফি মামলার আগামী শুনানি দিন ঘোষণা করেছেন আদালত।

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন