ঘরে থাকতে বলল ছোট্ট তৈমুরও

বিজ্ঞাপন
default-image

সাইফ আলী খান ও কারিনা কাপুর পুত্র তৈমুর আলী খানকে ছোটখাটো ‘মহাতারকা’ বলাই যায়। মিডিয়া এই পিচ্চির প্রতি যে পরিমাণ মনোযোগ দিয়েছে, তা অন্য কারও ক্ষেত্রে ঘটেনি। এমনিতে পাপারাজ্জিদের সঙ্গে তৈমুরের খুবই ভালো সম্পর্ক। তাঁদের সামনে রীতিমতো পোজ দিয়ে ছবি তোলে সে। আলোকচিত্রীদের জিজ্ঞেসও করে, ‘ভালো আছ? কী খেয়েছ?’

সম্প্রতি মা-বাবার শত নিরাপত্তাবলয় পেরিয়ে পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় আবারও ধরা দিয়েছেন তৈমুর। আর সেই ভিডিও ভাইরাল হতেও সময় নেয়নি। সেখানে তৈমুরকে মুখে মাস্ক পরা অবস্থায় দেখা গেছে। মাস্কের ওপর একটি স্টিকার আঁটা। পাক্কা সুপারস্টারের মতো ক্যামেরার দিকে হাতও নেড়েছেন তৈমুর। আর মাস্কের ওপরের স্টিকারে লেখা, ‘ঘরে থাকুন’।

default-image

ভারত সরকার ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে। নিয়ম মেনে ঘরে থাকতে বলেছেন তারকারা। সদ্য ইনস্টা নামের গ্রামে ঘর বাঁধা (পড়ুন অ্যাকাউন্ট খোলা) কারিনা কাপুর প্রতিনিয়ত ছবি পোস্ট করে জানান দিচ্ছেন কী করছেন না করছেন। অসংখ্য বলিউড তারকা তাঁদের ভক্তদের ঘরে থাকতে বলেছেন। বাদ গেল না তৈমুরও। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে তৈমুরও জানাল, বাঁচতে হলে ঘরে থাকতে হবে। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে।

তারকা হওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় কী? তারকার সন্তান হওয়া! তারকাদের তো তা-ও চলচ্চিত্র করে, প্রেম করে, বিয়ে করে, সামাজিক কর্মকাণ্ড করে ‘খবর’ হতে হয়। আর এই ‘স্টার কিড’রা জন্মই নেয় খবর হয়ে। এরপর যা-ই করে, তা-ই খবর। কী জামা পরে, কী খায়, কার সঙ্গে খেলে, কোন স্কুলে পড়ে—সবই স্থান পায় গণমাধ্যমে। আর এর আদর্শ উদাহরণ তৈমুর আলী খান, গণমাধ্যম আদর করে ওর নাম দিয়েছে টিম।

default-image

পতৌদি পরিবারের সবচেয়ে বড় তারকা কে? অপশনগুলো হলো মনসুর আলী খান পতৌদি, শর্মিলা ঠাকুর, সাইফ আলী খান ও কারিনা কাপুর খান। কারিনা নিজেই উত্তরটা দিয়েছেন, তাঁদের পরিবারের সবচেয়ে জনপ্রিয় তারকার নাম তৈমুর আলী খান। আর তা যে মিথ্যা নয়, তারও প্রমাণ মিলেছে একাধিকবার।

সেলিব্রিটিদের সন্তানদের মধ্যে তৈমুরের ফলোয়ার সবচেয়ে বেশি। তৈমুর তার লাল গাল আর নীল চোখের জন্য বেশ জনপ্রিয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কয়েকটি ফ্যান ক্লাবও খোলা রয়েছে তৈমুরকে নিয়ে। এই ফ্যান ক্লাবগুলো আবার খুব সক্রিয়। তারা নিয়মিত তৈমুরের সব খবর সরবরাহ করে। অসংখ্য বলিউড তারকা রীতিমতো ঘোষণা দিয়ে জানিয়েছেন, তাঁরা তৈমুরের ভক্ত।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন