বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আদিত্য ও তার পরিবারের লোকেরা রাঁধুনি হিসেবে দুর্দান্ত। তারা কাশ্মীরি আর তাই কাশ্মীরের জিভে জল আনা সাবেকি পদগুলো দারুণ বানান। এই সুখ থেকে নিজেকে মোটেও বঞ্চিত করতে চাই না।

default-image

তাই সানন্দে আমি তাদের রান্না করতে দিই। কাশ্মীরি আর ইতালিয়ান নানান ধরনের পদ দারুণ বানায় আদিত্য। আর ওর হাতের চা-ও অপূর্ব। তবে আমার হাতের ডেজার্টের বেশ নামডাক আছে। তাদের সবার জন্য একবার হিমাচলি একটা পদ বানিয়েছিলাম, তাদের খুব ভালো লেগেছিল।’

বিয়ের পর প্রথম দিওয়ালিকে ঘিরে খুবই উচ্ছ্বসিত ইয়ামি। মুম্বাইয়ের নতুন বাসায় আদিত্য ও তাঁর পরিবারের সঙ্গে এ বছর দিওয়ালি উদ্‌যাপন করবেন তিনি। এ প্রসঙ্গে ইয়ামি বলেছেন, ‘আমার মতো আমার শ্বশুর-শাশুড়িও এবারের দিওয়ালিকে নিয়ে একটু বেশি উচ্ছ্বসিত।

default-image

আমি প্রদীপ আর আলো দিয়ে সারা বাড়ি সাজিয়ে তুলব।’ দিওয়ালির কেনাকাটা প্রসঙ্গে এই বলিউড নায়িকা বলেছেন, ‘কেনাকাটার ব্যাপারে আমি খুবই অলস। আমার মা আর বোন সুরিলি আমার জন্য একটা সাবেকি পোশাক কিনেছে। আমি খুব খুশি যে আমার কাজটা তারা করে দিয়েছে।’
ইয়ামিকে আগামী দিনে একাধিক দারুণ দারুণ ছবিতে দেখা যাবে। দশবী, লস্ট, আ থার্সডে, আর ওহ মাই গড টু ছবির মূল চরিত্রে আছেন তিনি।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন