বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জঙলি পিকচার্সের আগামী ছবি ‘ডক্টর জি’তে আয়ুষ্মান খুরানার বিপরীতে দেখা যাবে রাকুল প্রীতকে। ছবিতে ‘ডক্টর ফাতিমা’ হয়ে ওঠার জন্য নানান প্রশিক্ষণ নিয়েছেন রাকুল। চিকিৎসাসংক্রান্ত নানান শব্দ (মেডিকেল টার্মস) শিখেছেন এই বলিউড অভিনেত্রী। এ ছাড়া একজন চিকিৎসকের কাজের প্রকৃতি জানার জন্য তিনি হাসপাতাল, এমনকি অস্ত্রোপচার কক্ষেও সময় কাটিয়েছেন।

default-image

এই বলিউড তারকা নিজের অভিনীত চরিত্র প্রসঙ্গে বলেন, ‘“ডক্টর জি” ছবির শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা দারুণ মজার। এই ছবিতে আমি চিকিৎসকের চরিত্রে অভিনয় করছি। তাই আমার আচরণ, শারীরিক ভাষা একদম চিকিৎসকের মতো দেখানো প্রয়োজন ছিল। চিকিৎসাসংক্রান্ত নানান বিষয় আমাকে শিখতে হয়েছে। তাই সব মিলিয়ে ফাতিমার এই সফর দুর্দান্ত।’

রাকুল আরও বলেন, ‘আমরা চাইতাম যে “ফাতিমা” যেন প্রামাণিক লাগে। ফাতিমার প্রকৃত রূপ পর্দায় তুলে ধরার জন্য প্রচুর লুক টেস্ট দিয়েছি। পরিচালক চেয়েছিলেন, আমি যেন আমার চরিত্রের ভালো গুণগুলো পর্দায় ঠিকভাবে মেলে ধরি। শুটিংয়ের সময় চিকিৎসকের সাদা জামা গায়ে পরতেই এক অদ্ভুত দায়িত্ববোধ অনুভব করেছিলাম। তা–ও আমি এক চিকিৎসকের চরিত্রে অভিনয় করেছিমাত্র। বাস্তবে একজন চিকিৎসকের কাঁধে অনেক বড় দায়িত্ব থাকে আর চিকিৎসকদের জীবন খুবই কঠিন।’ চিকিৎসাসংক্রান্ত সবকিছু পর্দায় যেন বাস্তবিক লাগে, এ কারণে নির্মাতারা আয়ুষ্মান, রাকুল, আর শেফালী শাহর সঙ্গে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের এক বৈঠকের ব্যবস্থা করেছিলেন।

default-image

‘ডক্টর জি’ ছবিটি পরিচালনা করছেন পরিচালক অনুভূতি কশ্যপ। তিনি আয়ুষ্মান আর রাকুল প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি অত্যন্ত খুশি যে আয়ুষ্মান আর রাকুলকে এই ছবির জন্য নির্বাচন করেছি। এই দুই দুর্দান্ত শিল্পীর সঙ্গে কাজ করার অনুভূতি সব সময় ভালোই হয়। এদের দুজনের উদ্যম আর রসায়ন বাস্তবে দর্শক পছন্দ করবেন। এই জুটিকে পর্দায় খুবই সজীব লাগবে।’

default-image

শোনা গেছে, এ মাসের মধ্যেই ‘ডক্টর জি’ ছবির শুটিং শেষ হয়ে যাবে। ছবিটির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আছেন শেফালী শাহ।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন