default-image

সাংবাদিক হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী জিনাত আমান। হঠাৎ ক্যারিয়ারের বাঁক বদলায়। মডেলিংয়ে ঢুকে পড়েন তিনি। ১৯৭০ সালে হন মিস এশিয়া প্যাসিফিক। তারপর সাংবাদিকতাকে গুড বাই জানিয়ে নেমে পড়েন বলিউডের ঝলমলে জগতে। প্রথম দিকে হোঁচট খেলেও ধীরে ধীরে হয়ে ওঠেন বলিউডের আবেদনময়ী তারকা আর ফ্যাশনের আইকন। সত্তর সালে সেই যে এসেছিলেন, থামেনি আজও। এ বছর ফিল্মে ক্যারিয়ারের ৫০ বছর পূর্ণ হলো তাঁর। শুটিং সেটেই সেটি উদ্‌যাপন করলেন জিনাত।

ভারতের স্থানীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম এই উদ্‌যাপনের কথা জানিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। গুজরাটে সিনেমার শুটিং সেটেই হইচই করে ৫০ বছর পূর্তি উদ্‌যাপন করলেন জিনাত। কাটা হলো কেক। জিনাত–ভক্তরা তখন সুরে সুরে গেয়েছিলেন ‘লায়লা ম্যায় লায়লা’ গানটি। জিনাত আমানের পরবর্তী সিনেমা ‘মারগাও দ্য ক্লোজড ফাইল’ পরিচালনা করছেন কপিল কৌস্তুভ শর্মা। মূলত এই পার্টিতে সিনেমাটির কলাকুশলীরাই অংশগ্রহণ করেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জিনাতের ফ্যান পেজে শেয়ার করা হয়েছে পার্টির কয়েক ঝলক। সেখানে জিনাত আমানকে দেখা গেছে পাকা চুলে। যদিও পাকা চুলের এই অভিনেত্রীকে দেখে ভক্তদের উচ্ছ্বাস কমেনি একচুলও। বরং বড় পর্দায় তাঁকে দেখার অপেক্ষায় সবাই।

বিজ্ঞাপন
default-image

জিনাত আমানের পথচলা অতটা সহজ ছিল না। ক্যারিয়ারের শুরুতেই ব্যর্থতা চেপে ধরেছিল তাঁকে। শুরুর দিকের দুটি ছবি বক্স অফিসে ভালো করতে পারেনি। জিনাত ভেবেছিলেন, থাক, আর না। কিন্তু একটা ফোনে বদলে গিয়েছিল তাঁর জীবন। জিনাত হাজির হলেন ‘হরে কৃষ্ণ হরে রাম’ সিনেমাতে। সহশিল্পী তখনকার সুদর্শন নায়ক দেব আনন্দ। এই ছবিই তাঁকে দিয়েছিল ‘তারকা’ হওয়ার সুবর্ণ সুযোগ। আর ডি বর্মনের সুরে ‘দম মারো দম’ গানে নেচে হইচই ফেলে দেন। পুরোনো ক্যারিয়ার সাংবাদিকতাকে ঝেড়ে ফেলে এগিয়ে যান রুপালি পর্দায়।

default-image

জিনাত বলিউডে কাজ করেছিলেন কয়েক দশক। বলিউড নায়িকাদের টিপিক্যাল পোশাক ঝেড়ে ফেলেছিলেন। পশ্চিমা পোশাককে নিজের মতো সাজিয়ে বলিউডে তৈরি করেন নতুন ফ্যাশন। আর তাতে পাগল ছিল তখনকার তরুণেরা। তবে বাস্তব জীবনে খুব একটা সুখী ছিলেন না এই অভিনেত্রী। ক্যারিয়ার যখন তুঙ্গে, বিয়ে করেছিলেন সঞ্জয় খানকে। কিন্তু মোহ, আবেগ আর ভুল ভেঙে যায় মাত্র ১ বছরে। ভুগতেও হয়েছিল তাঁকে। মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন। শোনা যায়, বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর হোটেলে ডেকে শারীরিক নির্যাতন চালিয়েছিলেন সঞ্জয়।

এত কিছুর পরও ক্যারিয়ার থেকে বিচ্যুত হননি জিনাত আমান। ২০১৯ সালে তিনি কাজ করেন ‘পানিপথ’ ছবিতে। আর এখন করছেন ‘মারগাও দ্য ক্লোজড ফাইল’ ছবিতে।

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন