রিয়া চক্রবর্তী
রিয়া চক্রবর্তী ইনস্টাগ্রাম
বুধবার মুম্বাইয়ের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে রিয়া চক্রবর্তী জামিনের আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু আবেদন খারিজ করে দিয়ে তাঁকে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। রিয়ার বিরুদ্ধে দাখিল করা চার্জশিটে সুশান্ত সিং রাজপুতকে মাদক জোগানের অভিযোগ এনেছে এনসিবি; যা প্রমাণিত হলে ১০ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে তাঁর।

রিয়া চক্রবর্তীর জামিন মেলেনি। তাঁকে পাঠানো হয়েছে জেলে। আগামী দুই সপ্তাহ সেখানেই থাকতে হবে তাঁকে। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার তাঁরা উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন করবেন।

ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো সুশান্ত সিং রাজপুত হত্যার তদন্তে রিয়ার সঙ্গে মাদকের যোগসূত্র থাকায় মঙ্গলবার প্রেপ্তার করেছে। বুধবার মুম্বাইয়ের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাঁর জামিনের আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু আবেদন খারিজ করে দিয়ে তাঁকে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

default-image

রিয়ার বিরুদ্ধে দাখিল করা চার্জশিটে সুশান্ত সিং রাজপুতকে মাদক জোগানের অভিযোগ এনেছে এনসিবি; যা প্রমাণিত হলে ১০ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে তাঁর। তবে রিয়া নিজেও মাদক সেবন করতেন, এ রকম কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন
‘আমরা তাঁকে বুঝেশুনে গ্রেপ্তার করেছি, কারণ আমাদের কাছে যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে তাঁকে কয়েক দিন আগেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। আমাদের আর জিজ্ঞাসাবাদের দরকার নেই।’
মুথা অশোক জৈন, উপপরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো
default-image

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে মাদকের সূত্র পাওয়ার পরই তদন্ত শুরু করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো। এ সূত্রে গত রোববার জেরা শুরু করে টানা তিন দিন জেরা করা হয় বাঙালি অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে। টানা তিন দিন জিজ্ঞাসাবাদের পর গতকাল গ্রেপ্তার করেছে ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো। এর আগে প্রথমে একই অভিযোগে রিয়ার ভাই শৌভিকসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।। গতকাল বিকেলে রিয়ার মেডিকেল পরীক্ষা করা হয়। রিয়ার কোভিড টেস্টের ফলাফল নেগেটিভ আসে।

default-image

ভারতীয় গণমাধ্যমে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর উপপরিচালক (অপারেশনস) কেপিএস মালহোত্রা বলেন, ‘হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট এবং অন্য আসামির বক্তব্যের ভিত্তিতে তারা রিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রিয়ার পরিবারকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে একই সংস্থার উপমহাপরিচালক মুথা অশোক জৈন বলেন, ‘আমরা তাঁকে বুঝেশুনে গ্রেপ্তার করেছি, কারণ আমাদের কাছে যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে তাঁকে কয়েক দিন আগেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। আমাদের আর জিজ্ঞাসাবাদের দরকার নেই।’

default-image
বিজ্ঞাপন
‘কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই কীভাবে গোটা দেশ রিয়াকে ফাঁসিতে ঝোলানোর জন্য উদ্‌গ্রীব হয়ে উঠেছে? কোনো বাবাই মেয়ের প্রতি এমন অন্যায়–অবিচার সহ্য করতে পারে না! আমার মরে যাওয়া উচিত।’
ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী, রিয়া চক্রবর্তীর বাবা

এদিক রিয়া গ্রেপ্তার এবং জামিন না পাওয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে বলিউড পাড়ায়। অন্যদিকে দুই ছেলেমেয়ের গ্রেপ্তারিতে বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী ভেঙে পড়েছেন। সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেছেন, ‘কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই কীভাবে গোটা দেশ রিয়াকে ফাঁসিতে ঝোলানোর জন্য উদ্‌গ্রীব হয়ে উঠেছে? কোনো বাবাই মেয়ের প্রতি এমন অন্যায়–অবিচার সহ্য করতে পারে না! আমার মরে যাওয়া উচিত।’ রিয়ার জামিনের আবেদন খারিজ হওয়ায় বেশি চিন্তিত তাঁর বাবা। জানালেন কাল বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন জানানো হবে।

default-image
বিজ্ঞাপন
কারিনা কাপুর খান, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, জোয়া আখতার, অভয় দেওল, শ্বেতা বচ্চন, নেহা ধুপিয়া, মালাইকা অরোরা, বিদ্যা বালান, তাপসী পান্নুর থেকে অনুরাগ কাশ্যপও প্রতিবাদ করেছেন।

নারী বলেই এত লাঞ্ছনা, অপমান-অপবাদ সইতে হচ্ছে রিয়া চক্রবর্তীকে—এমন কথাও বলছেন অনেকে। কারিনা কাপুর খান, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, জোয়া আখতার, অভয় দেওল, শ্বেতা বচ্চন, নেহা ধুপিয়া, মালাইকা অরোরা, বিদ্যা বালান, তাপসী পান্নুর থেকে অনুরাগ কাশ্যপও প্রতিবাদ করেছেন। তাপসী টুইট করে বলেছেন, ‘রিয়া নিজে মাদক নিতেন না। শুধু সুশান্তর জন্য মাদকের জোগান দিতেন। পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে রিয়াই সুশান্তকে জোরজবরদস্তি করে মাদক দিতেন। সুশান্তকে গাঁজা নিতে বাধ্য করতেন। গাঁজা খাইয়েই সুশান্তকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করেছেন। এই অবাস্তব কথাই এখন বাস্তব!’

default-image

১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজ বাসায় সুশান্ত সিং রাজপুতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বলা হয়েছে, আত্মহত্যা করেন সুশান্ত সিং রাজপুত। মৃত্যুর প্রায় তিন মাস পরেও আত্মহত্যার বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না অসংখ্য সুশান্তভক্ত।

মন্তব্য পড়ুন 0