কঙ্গনা রনৌত
কঙ্গনা রনৌত কোলাজ: আমিনুল ইসলাম

কী বলিউড, কী রাজনীতি—কোথায় নেই কঙ্গনা! কিছুদিন আগেই কৃষি বিল নিয়ে মন্তব্য করে মামলা খেয়েছেন। রমেশ নায়েক নামের এক আইনজীবী কৃষি বিলের মতন স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে ভুল ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর জন্য কঙ্গনার বিরুদ্ধে মামলা করেন। বিজেপির পক্ষ নিয়ে কঙ্গনা ওই টুইটে লিখেছিলেন, ‘যারা সিএএ (নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন) গুজব ছড়িয়েছিল, তারাই এখন কৃষি বিল নিয়ে উল্টাপাল্টা কথা বলছে। এ জন্য দেশে দাঙ্গা হচ্ছে। এই লোকেরা সন্ত্রাসী। আমি কী বলছি, আপনারা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন।’

default-image

এই গেল সাম্প্রতিক সময়ে কঙ্গনার বিরুদ্ধে প্রথম মামলা। আরও একটি মামলা করা হয়েছে কঙ্গনার বিরুদ্ধে। দ্বিতীয় মামলাটি করেছে মুম্বাই পুলিশ। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুরহস্যের তদন্ত চলার সময়ে কটু ও বিভ্রান্তিকর মন্তব্য করে পরিস্থিতি জটিল করে তোলায় এই মামলা করা হয়েছে। আর এই দুই মামলার আগেই বেআইনি নির্মাণের অভিযোগে মুম্বাই করপোরেশনের কর্মীরা কঙ্গনার বাড়ি ও লাগোয়া অফিসের বেশ খানিকটা ভেঙে ফেলেছেন।

বিজ্ঞাপন

এসব নিয়ে বেজায় চটেছেন কঙ্গনা। ক্ষেপে গিয়ে টুইটারে লিখেছেন, তিনি জেলে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত। লিখেছেন, ‘আজ সবাই আমাকে জেলে পাঠাতে চায়। আমিও জেলে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত।

default-image

সবাই আমার পেছনে লেগেছে, এর মানে হলো, আমি ঠিক রাস্তায়ই আছি। ওরা আমাকে জেলে পাঠাতে চায়, এটা আমাকে আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে। জেলে গেলে আমার জীবন আরও অর্থপূর্ণ হয়ে উঠবে। হ্যাঁ, আমি বিষয়টাকে এভাবেই দেখছি।’
প্রসঙ্গত, বিগত কয়েক মাসে বলিউড, বিতর্ক, টুইটার বা রাজনীতি—সব অঙ্গন মাতিয়ে রেখেছে একটাই নাম—কঙ্গনা। ১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই নানা মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনাম হচ্ছেন কঙ্গনা।

শুরু থেকে বলিউড মাফিয়াদের চক্রান্তের দিকে আঙুল তুলে আসছেন। এর মধ্যে কিছুদিন পরপর ভাইরাল হওয়া একেকটা পুরোনো ভিডিও কঙ্গনার পুরোনো আলাপকে সরিয়ে জায়গা করে নেয়। জন্ম দেয় নতুন নতুন বিতর্কের। কঙ্গনা রানৌত মুম্বাইকে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করেছেন। বলিউডকে বলেছেন আবর্জনা, ভাগাড়। তিনি বলিউডকে ‘একটা উদ্ভট শব্দ, হলিউড থেকে চুরি করা নকল জিনিস’ বলেও মন্তব্য করেন। ‘বলিউডের অলিখিত নিয়ম হলো, তুমি আমার কুকর্ম গোপন রাখবে, আর আমি তোমার।’ এটিও বলিউড নিয়ে কঙ্গনার তুমুল বিতর্কিত একটি মন্তব্য।

default-image
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0