default-image

জনপ্রিয় তামিল অভিনেতা ও কৌতুকাভিনেতা বিবেক মারা গেছেন। হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। বলিউডসহ ভারতীয় অভিনয়শিল্পীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শোক জানিয়েছেন।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন করা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার সকালে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন বিবেক। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। ওই দিনই সকাল ১১টা নাগাদ তিনি জ্ঞান হারান। এরপর বিভিন্ন পরীক্ষা শেষে চিকিৎসকেরা জানান, তাঁর পরিস্থিতি বেশ সংকটজনক। শনিবার ভোরে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রয়াত এই অভিনেতাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন রজনীকান্ত, কমল হাসানের মতো দক্ষিণী মহাতারকারা। প্রিয় অভিনেতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন অভিষেক বচ্চন, এ আর রহমানসহ অনেকেই। শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বলিউডের একাধিক সিনেমা–সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।
এদিকে বলউডের প্রযোজক বনি কাপুর জানিয়েছেন, এই নায়কের ভক্ত ছিলেন বলিউডের প্রয়াত তারকা অভিনেত্রী শ্রীদেবী। নিজের স্ত্রী শ্রীদেবীর সঙ্গে বিবেকের একটি ছবি টুইট করে বনি জানান, বিবেকের অভিনয়ের এক গুণমুগ্ধ ভক্ত ছিলেন শ্রীদেবী। শ্রীদেবী যে তাঁকে বিবেকের সঙ্গে আলাপ করিয়েছিলেন, সে কথাও টুইটে জানিয়েছেন বনি।

default-image

এরপরই বিবেকের পরিবারের উদ্দেশে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন জাহ্নবী কাপুরের বাবা। বনির টুইট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি অনুষ্ঠানে শ্রীদেবী-বিবেক। দুজনই হাসছেন।

দক্ষিণ ভারতীয় ছবিতে কমল হাসান, রজনীকান্তের মতো অভিনেতাদের সঙ্গেও কাজ করেছিলেন বিবেক। একজন দুর্দান্ত অভিনেতার পাশাপাশি সমাজকর্মীও ছিলেন বিবেক। ছিলেন রজনীকান্তের বন্ধুও।

default-image

‘শিবাজী’ ছবিতে বিবেকের সঙ্গে কাজ করার দারুণ অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন রজনীকান্ত। কমল হাসান বিবেককে ‘গাছেদের অভিভাবক’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। প্রয়াত এই অভিনেতার স্মৃতিচারণা করে কমল হাসান বলেন, ‘বিবেকের মৃত্যু তামিলসমাজের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি।’
নিজের অভিনয়ের ছাপ রেখে গিয়েছেন তাঁর প্রতিটি কাজে। ১৯৮৭ সালে পরিচালক কে বালাচন্দ্রর হাত ধরে সিনেমাজগতে পা রেখেছিলেন তিনি। একজন অভিনেতার পাশাপাশি দক্ষ কমেডিয়ান হিসেবেও দর্শকের ভালোবাসা পেয়েছিলেন বিবেক।

default-image
বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন