তিরুপতির পর স্বর্ণমন্দিরে দীপিকা ও রণবীর

বিজ্ঞাপন
default-image

বলিউডের এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা দম্পতি রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনের প্রথম বিবাহবার্ষিকী ছিল গত বৃহস্পতিবার। সেদিন সকালে তাঁরা গিয়েছিলেন তিরুপতি তিরুমালা মন্দিরে। এরপর গতকাল শুক্রবার সকালে তাঁরা যান অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে। সেখানে তাঁরা হরমন্দির সাহিবের আশীর্বাদ নেন। সেখান থেকে ফিরে কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন। মুহূর্তেই সেসব ছবি ভাইরাল হয়ে যায়।

default-image

টাইমস অব ইন্ডিয়াসহ ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকে জানা গেছে, স্বর্ণমন্দিরে দুজনের পরনে ছিল ফ্যাশন ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের পোশাক। দীপিকা পাড়ুকোনের মাথায় ওড়না ও মেরুন রঙের সালোয়ার-কামিজ আর রণবীর সিংয়ের পরনে ছিল ফ্লোরাল প্রিন্টের গোলাপি কুর্তা, সঙ্গে মানানসই জহর কোট ও মাথায় ঐতিহ্যবাহী সাফা। দীপিকার সঙ্গে ছিল ভারী গয়না। এই পোশাকেই সেখান থেকে মুম্বাই ফিরেছেন তাঁরা। বিমানবন্দরের বাইরে তখন তাঁদের ক্যামেরাবন্দী করা হয়।

default-image

এর আগে বৃহস্পতিবার রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনের পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে তিরুপতি তিরুমালা মন্দিরে যান। সেদিন বিয়ের কনের মতো লাল কাঞ্জিভরম আর ভারী সোনার গয়নায় সেজেছেন দীপিকা। রণবীরের পরনে ছিল ঘিয়েরঙা কুর্তি-পাজামা আর ব্রোকেডের জ্যাকেট। গায়ে জড়ানো ছিল গোলাপি আশীর্বাদি ওড়না।

default-image

রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনের প্রথম বিবাহবার্ষিকী উদ্‌যাপন দেখে অনেকেই মন্তব্য করেছেন, নিজেদের সুন্দর ভবিষ্যৎ আর সুখ-শান্তির জন্য ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করেছেন তাঁরা।

২০১৮ সালের ১৪ নভেম্বর উত্তর ইতালির লেক কোমোয় ‘ডেস্টিনেশন ওয়েডিং’ হয় দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিংয়ের। সিন্ধি ও কোংকানি প্রথা মেনে সাত পাকে বাঁধা পড়েন তাঁরা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন