default-image

নেটফ্লিক্সে আসতে চলেছে জাহ্নবী কাপুর অভিনীত বায়োপিক ‘গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল’। এ ছবিতে ভারতীয় বিমানসেনার প্রথম নারী কর্মকর্তা গুঞ্জন সাক্সেনা রূপে দেখা দেবেন শ্রীদেবী–কন্যা। পর্দায় গুঞ্জন হয়ে ওঠার জন্য কড়া ডায়েট, শরীরচর্চার পাশাপাশি বিমান চালানোর প্রশিক্ষণ পর্যন্ত নিয়েছেন। এই সিনেমার অভিজ্ঞতা অনেক কিছুই শিখিয়েছে জাহ্নবীকে। আর এসব শিক্ষা তাঁর জীবন পরিচালনার পাথেয় হিসেবে থাকবে বলে মনে করেন তিনি।

জাহ্নবী মনে করেন, একটা ছবি সেই ছবির অভিনয়শিল্পীদের জন্য এক শিক্ষাসফর। জাহ্নবীর ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। ‘গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল’ এই বায়োপিক থেকে অনেক কিছু শিখেছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে জাহ্নবী বলেন, ‘এই বায়োপিকে কাজ করে আমি বুঝেছি, কঠোর পরিশ্রম আর প্রচেষ্টা মানুষকে তার লক্ষ্যে নিয়ে যায়। গুঞ্জন খুবই সাধারণ এক মেয়ে ছিল। শুধু পরিশ্রমের জোরেই সে অসাধ্যকে সাধন করেছে।’

default-image

চারপাশে নেপোটিজম নিয়ে তুমুল আলাপ, তর্কবিতর্ক চলছে। ছবি মুক্তি সামনে রেখে এই ‘বলিউড–কন্যা’ এ বিষয়ে কথা বলেছেন অতি কোমল সুরে। তিনি নাকি নিজেকে দোষী মনে করেন। জাহ্নবী বলেছেন, ‘আমি সব ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাই। অনেক সুযোগ–সুবিধা পাই। তাই আমার নিজেকে দোষী মনে হয়। সুবিধাপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের খাতায় আমার নাম ওঠায় অপরাধবোধে ভুগি আমি। তবে একটা কাজই আমি করতে পারি। শুধু কঠোর পরিশ্রমের জোরে আমি নিজেকে প্রমাণ করে আমার কাজের জগতে প্রতিষ্ঠা পেতে পারি।’
শরণ শর্মা পরিচালিত ‘গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল’ ছবিতে জাহ্নবী ছাড়াও পঙ্কজ ত্রিপাঠী, অঙ্গদ বেদী আছেন। আগস্টে নেটফ্লিক্সের এই ছবির ট্রেলার মুক্তি পাবে।

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন