নিজেকে দেখে কাঁদলেন দীপিকা

বিজ্ঞাপন
default-image

দীপিকা পাড়ুকোন বাকরুদ্ধ। চোখ দিয়ে অনবরত পানি ঝরছে। কিছুতেই চোখের পানিকে বাগে আনতে পারছেন না। ‘ছপাক’ ছবির ট্রেলার দেখে এমনই অবস্থা হয়েছে বলিউডের এই জনপ্রিয় তারকার।

আজ মঙ্গলবার মুম্বাইয়ের এক মাল্টিপ্লেক্সে মুক্তি পেয়েছে মেঘনা গুলজার পরিচালিত ‘ছপাক’ ছবির ২ মিনিট ১৯ সেকেন্ডের ট্রেলার। অ্যাসিডে আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনের ওপর নির্মিত হয়েছে ছবিটি।

default-image

বড় পর্দায় আজ প্রথম ট্রেলার দেখে অত্যন্ত আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন দীপিকা পাড়ুকোন। এই বলিউড সুন্দরী লক্ষ্মী আগরওয়ালের চরিত্রে অভিনয় করছেন। কয়েক মাস আগে ‘ছপাক’ ছবিতে দীপিকার লুক প্রকাশ পায়। আর সেই লুকেই তিনি সবার হৃদয় জয় করেন। দীপিকার এই সাহসী পদক্ষেপের জন্য সবাই প্রশংসা করেছেন।

ট্রেলার মুক্তির পর সংবাদ সম্মেলনে দীপিকা পাড়ুকোন চোখের পানি সামলে নিয়ে বলেন, ‘আমি চিত্রনাট্যের প্রথম দুটি পাতা শুনেই ছবিটি করতে রাজি হয়ে যাই। আর এই ছবির গল্প যিনি বলছেন, তার ওপর আমার পূর্ণ আস্থা ছিল। আমি জানি, ঠিক ব্যক্তি ছবিটি পরিচালনা করছেন।’

default-image

লক্ষ্মী রূপে নিজেকে প্রথম আয়নায় দেখে কেমন প্রতিক্রিয়া হয়েছিল? দীপিকা পাড়ুকোন বলেন, ‘ফক্সের অফিসে আমার লুক টেস্ট হয়েছিল। তিন থেকে চার ঘণ্টার মেকআপের পর আমার ছবির লুক চূড়ান্ত হয়। এই লুকে নিজেকে আয়নায় প্রথম দেখে মনে হয়েছিল, আমার মধ্যে কোনো বদল আসেনি। আমি একই রকম আছি।’ তিনি আরও বললেন, ‘শুটিংয়ের শেষ দিন আমি প্রস্থেটিক মেকআপের একটা টুকরো চাই। এগুলো খুব ব্যয়বহুল। আমি একটা টুকরোর ওপর অ্যালকোহল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে দিই।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন