বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

জন্মদিন উপলক্ষে প্রাচীর ভিডিও ইন্টারভিউয়ের একটি সংকলন প্রকাশ করে বলিউড হাঙ্গামা। একটিতে তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, পত্রিকার ‘পাত্রী চাই’ কলামে চোখ আটকে গেলে পাত্রের কোন বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখেন? প্রাচীর উত্তর, ‘শিক্ষাগত যোগ্যতা।’

default-image

ভিডিও ইন্টারভিউয়ের এই সংকলনে জীবনের একটা কঠিন শিক্ষা শেয়ার করেছেন প্রাচী। রোহিত শেঠির সঙ্গে তাঁর প্রেম ছিল। একদিন ফোনে তিনি জানালেন, ভারতের বাইরের একটি দেশে আছেন তিনি। প্রেমিককে চমকে দিতে সেখানে গিয়ে নিজেই চমকে যান প্রাচী। জানতে পারেন, রোহিত সেখানে নেই। এই মিথ্যাচারে রীতিমতো হৃদয় ভেঙে গিয়েছিল তাঁর।

এক সাক্ষাৎকারে সেই অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘সেই দেশে পৌঁছে যখন জানলাম সে নেই, তাঁকে কিচ্ছু বলিনি। ফোনে যখন কথা হলো, অনেকটা সময় চুপ করে ছিলাম। এতে সে–ও চমকে গিয়েছিল। আমি পাত্তা দিইনি, নিজের মতো সময় কাটিয়েছি। সময়টা আমার আসলে একা কাটানো খুব জরুরি ছিল।’ কারও কাছ থেকে আঘাত পেলে মন খুলে সেটা কাউকে বলতে পারেন না প্রাচী। তিনি বলেন, ‘জানি এই প্রবণতা হয়তো ভালো না। কিন্তু আমি তাৎক্ষণিকভাবে কিছু বলতে পারি না। দরকার হলে পরে বলি।’

সাইলেন্স...ক্যান ইউ হিয়ার ইট? ছবিতে ইন্সপেক্টর সানজানা ভাটিয়া চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রাচী। এ ছবিতে তাঁর সহশিল্পী মনোজ বাজপেয়ী। রক অন দিয়ে ২০০৮ সালে বলিউডে অভিষেক হয় তাঁর। তার আগে বেশ কিছু টেলিভিশন সিরিজেও অভিনয় করেছেন প্রাচী। আগামী বছর তাঁকে দেখা যাবে কোষা ও ফরেনসিক নামের দুই ছবিতে।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন