বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুপম শ্যাম নিজেই জানিয়েছিলেন, শুটিং শেষ করে হাসপাতালে ডায়ালাইসিস করাতে যান তিনি। অর্থকষ্ট আছেন। এ পরিস্থিতিতেই সপ্তাহখানেক আগে অবস্থার অবনতি হলে মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন অনুপম শ্যাম। চলছিল ডায়ালাইসিস। অভিনেতা সোনু সুদ এ অভিনেতার পাশে দাঁড়ান।

default-image

গত বুধবার সনু সুদ টুইটারে জানান, তিনি অনুপমের পরিজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। মুম্বাই চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন শিল্পী সমিতিও একসময় অভিনেতার পরিবারের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু তত দিনে দেরি হয়ে গেছে। শরীর দিন দিন খারাপ হতে থাকে। গতকাল রাতে আর চিকিৎসায় সাড়া দিলেন না।

প্রায় চার দশক ধরে অভিনয়জগতের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন অনুপম শ্যাম। চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন—দুই মাধ্যমে সমানতালে অভিনয় করেছেন। ‘স্লামডগ মিলিয়নিয়ার’, ‘ব্যান্ডিট কুইন’, ‘লগান’, ‘দুশমন’, ‘সত্য সংগ্রাম’, ‘হাজার চৌরাশি কি মা’, ‘নায়ক’, ‘শক্তি’, ‘পাপ’, ‘শ্যাম দস্তক’-এর মতো ব্যবসাসফল ছবিতে কাজ করেছেন অনুপম শ্যাম।

default-image

‘মন কি আওয়াজ প্রতিজ্ঞা’তে ঠাকুর সজ্জন সিংয়ের ভূমিকায় তাঁর অভিনয় এতটাই জনপ্রিয় হয়েছিল যে ছোট পর্দার শিল্পীরা তাঁকে এই নামেই ডাকতেন। স্থানীয় অনেক খল অভিনেতা তাঁকে অনুকরণ করে গোঁফ রাখাও শুরু করেছিলেন।

গতকাল রাতে বার্তা সংস্থা এএনআইকে দেওয়া এক স্মৃতিচারণায় অভিনেতা যশপাল শর্মা জানিয়েছেন, শারীরিক অসুস্থতাকে আমলে না নিয়ে কাজ চালিয়ে যেতেন অনুপম শ্যাম।

default-image

হাসপাতাল থেকে যশপাল এএনআইকে বলেন, ‘শেষ ছবির শুটিংয়ে আসতেন ডায়ালাইসিস ও ইনজেকশন নিয়ে। আজ শুনলাম শরীর বেশি খারাপ। তাই তড়িঘড়ি হাসপাতালে ছুটে এসেছি। দেখে মনে হলো বেঁচে আছেন এবং নিশ্বাস নিচ্ছেন। পরে চিকিৎসকেরা জানালেন যে তিনি আর আমাদের মধ্যে নেই। খুব খারাপ লাগছে। অভিভাবকের মতো ছিলেন তিনি।’ শোক প্রকাশ করেছেন অভিনেতা মনোজ জোশি, অশোক পণ্ডিতসহ অনেকেই।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন