default-image

শেষ পর্যন্ত কারাগারে যাওয়া থেকে রক্ষা পেয়েছেন রাজপাল যাদব। এই বলিউড তারকা আর তাঁর স্ত্রী রাধা যাদবের বিরুদ্ধে সাতটি চেক জালিয়াতি ও ঋণসংক্রান্ত মামলা করে দিল্লির প্রতিষ্ঠান মুরলি প্রজেক্ট। গত শুক্রবার আদালত এই দম্পতিকে দোষী সাব্যস্ত করেছেন। গতকাল সোমবার রাজপাল যাদবকে ছয় মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লির কারকারডোমা আদালতের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট অমিত অরোরা। আদালত রাজপাল যাদবকে ১১ কোটি ২ লাখ রুপি আর রাধা যাদবকে ৭০ লাখ রুপি জরিমানা করেছেন।

তবে আদালতে তাঁদের আইনজীবী জানিয়েছেন, প্রতিটি মামলার জন্য ১ কোটি ৬ লাখ রুপি জরিমানা দেবেন রাজপাল যাদব। তিনি একই আদালতে রাজপাল যাদবের জন্য জামিনের আবেদন করেন। শুরুতে রাজি না হলেও পরে ৫০ হাজার রুপির ব্যক্তিগত বন্ডে আদালত তাঁকে জামিন দিয়েছেন।

জানা গেছে, অভিনেতা রাজপাল যাদব বলিউডে চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চেয়েছিলেন। এই চলচ্চিত্র তৈরির জন্য ২০১০ সালে রাজপাল যাদব ও রাধা যাদবের প্রতিষ্ঠান শ্রী নৌরং গোদাভারি এন্টারটেইনমেন্ট দিল্লির মুরলি প্রজেক্টের কর্ণধার এম জি আগরওয়ালের কাছ থেকে পাঁচ কোটি রুপি ঋণ নেন। রাজপাল যাদব পরিচালিত সেই ছবির নাম ‘আতা পাতা লাপাত্তা’। কিন্তু সেই টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয় রাজপাল যাদবের প্রতিষ্ঠান। এরপর রাজপাল যাদব আর তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন এম জি আগরওয়াল। হিন্দুস্তান টাইমস, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0