কঙ্গনা রনৌত
কঙ্গনা রনৌতইনস্টাগ্রাম

বলিউড থেকে দুহাত ভরে নিয়েছেন কঙ্গনা রনৌত। অনেক বঞ্চনার শিকারও হয়েছেন। হিমাচলের পাহাড়ি এলাকার মেয়ে একদিন হয়ে গেছেন বলিউডের কুইন। এ জন্য কম পরিশ্রম করতে হয়নি তাঁকে, কম কাঠখড় পোড়াতে হয়নি। সেই কঙ্গনা এবার বলিউডকে বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন।

default-image

বলিউডের অন্ধকার দিকগুলো খুব ভালো জানেন কঙ্গনা। ঝলমলে আলোর নিচে অন্ধকারের সাক্ষী তিনিও। বলিউড নিয়ে তাই একধরনের ঘৃণা জন্মেছে এই তারকার মনে। মাঝেমধ্যেই তাই বিদ্রোহী হয়ে উঠেছেন তিনি। বলিউডকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন স্বজনপ্রীতি, মাদক আর মাফিয়ার রাজ্য হিসেবে। সম্প্রতি বলিউড শব্দটিকেই বর্জনের ডাক দিয়েছেন তিনি। বলিউড নয়, ‘হিন্দি ছবি’ হিসেবেই হিন্দি ভাষার ছবিকে সবার সামনে পরিচয় করিয়ে দিতে আগ্রহী এই অভিনেত্রী। তাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘হ্যাশট্যাগ ইন্ডিয়া রিজেক্ট বলিউড’ প্রচারণা শুরু করেছেন তিনি।

default-image
বিজ্ঞাপন

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত মারা যাওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় কঙ্গনা বলিউডের ছবিকে ‘হিন্দি সিনেমা’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। তাঁর মতে, বলিউড হলো মাফিয়া ও মাদকের স্বর্গরাজ্য। শুধু তা–ই নয়, বলিউড কঙ্গনার কাছে স্রেফ হলিউডের নকল ছাড়া আর কিছুই না। কঙ্গনা টুইটে লিখেছেন, ‘এখানে কিছু শিল্পী আর কিছু ভণ্ড আছে। এটাই ইন্ডিয়ান ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি, এটাই বলিউড। বলিউড এক উদ্ভট শব্দ, যা একটা নকল জিনিস, যা হলিউড থেকে চুরি করা।’

default-image

এই পোস্টের সঙ্গে কঙ্গনা হ্যাশট্যাগ দিয়ে লিখেছেন, ‘ইন্ডিয়া রিজেক্ট বলিউড’। কঙ্গনা এর আগে বলেছিলেন, বলিউডের বেশ কিছু মাফিয়া সুশান্তর জীবন ধ্বংস করেছে। তাঁর জীবন ও ক্যারিয়ারও ধ্বংস করে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু মাফিয়াদের সঙ্গে লড়াই করেছেন কঙ্গনা।

কঙ্গনা এখন ভীষণ ব্যস্ত। পরবর্তী ছবি তেজাস-এর প্রশিক্ষণে নেমেছেন। ভারতীয় অভিনেত্রী ও রাজনীতিবিদ জয়ললিতাকে নিয়ে আসছে থালাইভি। সেখানে জয়ললিতা রূপে দেখা যাবে তাঁকে। ছবিটি হবে তামিল, তেলেগু ও হিন্দি ভাষায়।

default-image
মন্তব্য পড়ুন 0